ঢাকা, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০
সর্বশেষ:
আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুম (০১৭০০৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন নম্বরে (০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫, ০১৯৪৪৩৩৩২২২, ০১৫৫০০৬৪৯০১–০৫) যোগাযোগ করা যাবে। এ ছাড়া করোনাসংক্রান্ত তথ্য জানতে বা সহযোগিতা পেতে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ এবং ৩৩৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। অনলাইনে করোনা নিয়ে যোগাযোগ করতে আইইডিসিআরের ই-মেইল [email protected] এবং ফেসবুক পেজে (Iedcr,COVID19 Control Room) যোগাযোগ করা যাবে। জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

শান্তিরক্ষা মিশনে আবারো প্রথম স্থানে বাংলাদেশ 

নিজস্ব প্রতিবেদক 

প্রকাশিত: ২৩:৩০, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২০  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো


বিশ্বজুড়ে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনে দায়িত্বপালনরত বাংলাদেশ দুটি সাফল্য অর্জন করেছে সম্প্রতি। এর প্রথমটি হচ্ছে শান্তি মিশনে সর্বোচ্চ শান্তিরক্ষী প্রেরণকারী দেশ হিসেবে দীর্ঘদিন দ্বিতীয় অবস্থানে থাকার পর আবারো প্রথম অবস্থানে উঠে এসেছে বাংলাদেশ।

গত ৩১ আগস্ট শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীদের সংখ্যা মোট ছয় হাজার ৭৩২ জনে উন্নীত হয়। এর মাধ্যমে বাংলাদেশ সর্বোচ্চ শান্তিরক্ষী প্রেরণকারী দেশের মর্যাদা লাভ করলো। আর দ্বিতীয় সাফল্যটি হচ্ছে বাংলাদেশি সেনা কর্মকর্তা মেজর জেনারেল মাঈন উল্লাহ চৌধুরী দক্ষিণ সুদানে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনের ডেপুটি ফোর্স কমান্ডার নির্বাচিত হয়েছেন। আজ শনিবার আইএসপিআর এ তথ্য নিশ্চিত করে।

তবে এর আগেও বাংলাদেশের সেনা কর্মকর্তারা জাতিসংঘ মিশনে ফোর্স কমান্ডার ও ডেপুটি ফোর্স কমান্ডার হিসেবে ঈর্ষণীয় সাফল্যের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন। প্রসঙ্গ সামরিক ও পুলিশ শান্তিরক্ষী পাঠানোর ক্ষেত্রে এর আগেও অনেকগুলো বছর শীর্ষ অবস্থান ধরে রেখেছিল বাংলাদেশ। জাতিসংঘের তথ্য মোতাবেক ২০১১ সালের জানুয়ারি থেকে ২০১৩ সালের এপ্রিল মাসের শেষ দিন পর্যন্ত ২৮ মাসের মধ্যে ২০ মাসই বাংলাদেশ শীর্ষে ছিল। এর আগে এবং পরেও সর্বোচ্চ শান্তিরক্ষি প্রেরণকারী প্রথম সারির দেশগুলোর তালিকায় ছিল বাংলাদেশ।

জাতিসংঘ ‘ডিপার্টমেন্ট অব পিসকিপিং অপারেশন্স’-এর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত শান্তিরক্ষা মিশনে কোন দেশ কত সামরিক ও পুলিশ সদস্য পাঠিয়েছে সে সংক্রান্ত প্রতিবেদন (সর্বশেষ গত ৩১ আগস্ট  পর্যন্ত) পর্যালোচনায় এমন তথ্য জানা গেছে।

ওই প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশ সবচেয়ে বেশি সামরিক ও পুলিশ সদস্য প্রেরণকারী দেশগুলোর মধ্যে প্রথম অবস্থানে রয়েছে এখন। বাংলাদেশের  ছয়  হাজার ৪৭৭ জন পুরুষ ও ২৫৫ জন নারী মিলিয়ে মোট  ছয় হাজার ৭৩২ জন শান্তিরক্ষী  মিশনে দায়িত্ব পালন করছেন।

দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ইথিওপিয়া; এ দেশটির শান্তিরক্ষীর সংখ্যা ৬ হাজার ৬৬২ জন। এছাড়া ছয় হাজার ৩২২ জন নিয়ে তৃতীয় অবস্থানে রুয়ান্ডা, পাঁচ হাজার ৬৮২ জন নিয়ে চতুর্থ অবস্থানে নেপাল,  পাঁচ হাজার ৩৫৩ জন নিয়ে পঞ্চম অবস্থানে ভারত, চার হাজার ৪৪০ জন নিয়ে ৬ষ্ঠ অবস্থানে পাকিস্তান এবং সপ্তম অবস্থানে রয়েছে মিশর যাদের শান্তিরক্ষীর সংখ্যা  তিন হাজার ৯৩ জন।

প্রসঙ্গত, ১৯৮৯ সালে উপসাগরীয় যুদ্ধকালে ইরাক-ইরানে সামরিক পর্যবেক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নেয়া শুরু হয়। বাংলাদেশ নৌবাহিনী ও বিমানবাহিনী এ মিশনে দায়িত্ব পালন করে আসছে ১৯৯৩ সাল থেকে। বাংলাদেশের পুলিশ এ মিশনে অংশগ্রহণ করে আসছে ১৯৮৯ সাল থেকে।

আইএসপিআরের সাম্প্রতিক তথ্য অনুসারে গত মে মাস পর্যন্ত বিশ্বের ৪০টি দেশে ৫৪টি মিশনে এক লাখ ৭০ হাজার ২৪৩ জন বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী দায়িত্ব পালন করেন। বাংলাদেশের নারী শন্তিরক্ষী দায়িত্ব পালন করেছেন এক হাজার ৮০৩ জন। বর্তমানে দায়িত্ব পালন করছেন ২৫৫ জন।

বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীরা এ মুহূর্তে দায়িত্ব পালন করছেন বিশ্বের ১১টি দেশে। বিশ্বজুড়ে শান্তিরক্ষার ঝুঁকিপূর্ণ এ দায়িত্ব পালনের সময় জীবন দিতে হয়েছে ১৫১ জনকে।

নিউজওয়ান২৪.কম/এমজেড

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত