ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
সর্বশেষ:
আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন ডিসেম্বরে হেল্পলাইন ১৬২৬৩ এ কল করলেই ডাক্তারের পরামর্শ ডেঙ্গি নিয়ন্ত্রণে একটি সমন্বিত পদক্ষেপ খুবই জরুরি

প্রধানমন্ত্রীর বিস্ময়

‘তাকে তিরস্কার না করে পুরস্কার দেয়া হচ্ছে!’

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ১৬:৫০, ২০ আগস্ট ২০১৯  

জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক) মেঘনা নদীর ভাঙন থেকে ভোলা জেলার চরফ্যাশন পৌর শহর সংরক্ষণ প্রকল্পের প্রথম সংশোধন অনুমোদন করেছে আজ (মঙ্গলবার)। ২৭৭ কোটি ৯৮ লাখ টাকা ব্যয়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড (বাপাউবো)।

তবে এই প্রকল্পে যাকে প্রকৌশলী নিয়োগ করা হয়েছে তিনি সেখানকারই আরেকটি প্রকল্পের প্রকৌশলী ছিলেন। তারই গাফিলতির কারণে প্রকল্পটির নানা ত্রুটির জন্য সরকারকে প্রচুর অর্থ গচ্চা দিতে হয়েছিল। 

সরকারের বড় ধরনের ক্ষতি করা সেই প্রকৌশলীই কিভাবে আবার চরফ্যাশন পৌর শহর সংরক্ষণ প্রকল্পের পরিচালক হলেন- তা নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন একনেক চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিষয়টি নজরে আসার পর ওই প্রকৌশলীর শাস্তি নিশ্চিতের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

একনেকের সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান আজ এসব তথ্য জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রীর দেয়া বক্তব্য তুলে ধরে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘ভোলা জেলার চরফ্যাশন পৌরসভা সংরক্ষণের জন্য একটি সংশোধিত প্রকল্প এসেছে। এখানে আরেকটি প্রকল্প অতীতে করা হয়েছিল, যেখানে গাফিলতি ছিল। ফর রঙ অ্যাসেসমেন্ট ডান বাই ইঞ্জিনিয়ার। এই ইঞ্জিনিয়ারের ভুলের জন্য আমাদের বহু ক্ষতি হয়েছিল ওই প্রকল্পে। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হয়নি, টাকা এভরিথিং জলে গেছে। তিনি বলেছেন, একই লোক নাকি আবার এখানে ইঞ্জিনিয়ার! তিনি বলেছেন, হাউ ইজ ইট পসিবল? তার ভুলের জন্য আমাদের এত বড় ক্ষতি হলো, তাকে তিরস্কার না করে পুরস্কার দেয়া হচ্ছে, এটা গ্রহণযোগ্য নয়।’

জানা গেছে, আগের সেই প্রকল্পে একটা তদন্ত হয়েছিল। সেখানে প্রকৌশলীর গাফিলতির বিষয়টা উঠে এসেছিল। তার পরিপ্রেক্ষিতে কী ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছিল ওই প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে, সেটার গ্রহণযোগ্য জবাব একনেক সভায় পাননি প্রধানমন্ত্রী।

পরিকল্পনামন্ত্রী মান্নান বলেন, “সেখানে উপস্থিত (পানিসম্পদ) মন্ত্রী বলেছেন, ‘আমি অবহিত আছি। আমি নিজেই বিষয়টা দেখছি। আমি জোরালো ভূমিকা নেব। মন্ত্রী মহোদয়, সচিব মহোদয়– উভয়ই বলেছেন আজ তারা ফিরে গিয়েই শাস্তি বিধানের জন্য যেসব আইনানুগ প্রক্রিয়া আছে, সেগুলো শুরু করবেন।” সূত্র: জাগোনিউজ২৪.কম

নিউজওয়ান২৪.কম/আরকে

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত