ঢাকা, ১৫ নভেম্বর, ২০১৯
সর্বশেষ:
জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯ আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন ডিসেম্বরে হেল্পলাইন ১৬২৬৩ এ কল করলেই ডাক্তারের পরামর্শ

কুয়েতী প্রধানমন্ত্রীর বহুল প্রতীক্ষিত ঢাকা সফর শুরু

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০০:০৪, ৪ মে ২০১৬   আপডেট: ২০:৫৫, ৪ মে ২০১৬

শাহজালাল বিমানবন্দরে শেখ জাবেরকে স্বাগত জানান শেখ হাসিনা

শাহজালাল বিমানবন্দরে শেখ জাবেরকে স্বাগত জানান শেখ হাসিনা

ঢাকা: তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে কুয়েতের প্রধানমন্ত্রী শেখ জাবের আল-মুবারক আল-হামাদ আল-সাবাহ এখন ঢাকায়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে কুয়েতী প্রধানমন্ত্রী শেখ জাবের দ্বিপক্ষীয় গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে বসবেন বুধবার।

বাংলাদেশের দৃষ্টিকোণ থেকে কুয়েতী প্রধানমন্ত্রীর এই সফরকে বেশ গুরুত্বপূর্ণ মনে করা হচ্ছে।

যেসব চুক্তির কথা রয়েছে
দুই দেশের মধ্যে তিনটি সম্ভাব্য চুক্তি স্বাক্ষরের কথা রয়েছে শেখ জাবেরের বাংলাদেশ সফরকালে। এগুলো হলো কুয়েতের সঙ্গে বিনিয়োগ বৃদ্ধি ও সুরক্ষা, সামরিক সহযোগিতা এবং কূটনৈতিক ও অফিশিয়াল পাসপোর্টধারীদের ভিসা সহজীকরণ সংক্রান্ত চুক্তি।

সম্ভাবনা সমূহ
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, দক্ষিণ এশিয়ার উদীয়মান অর্থনীতির দেশ বাংলাদেশ এবং মধ্যপ্রাচ্যের তেলসমৃদ্ধ ধনী দেশ কুয়েতের মাঝে বিদ্যমান প্রতিরক্ষা বিষয়ক সম্পর্ক এগিয়ে নেওয়া, তথ্যপ্রযুক্তি, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাত এবং কৃষিতে সহযোগিতাসহ আন্তর্জাতিক ফোরামে দুই দেশের অভিন্ন স্বার্থ, বর্তমান মধ্যপ্রাচ্য পরিস্থিতি নিয়ে দুই নেতার বৈঠকে আলোচনা হতে পারে। এছাড়াও ওআইসি নিয়েও আলোচনা উঠতে পারে।

অর্থনৈতিক দিক থেকে আরেকটি ইস্যু আলোচনায় উঠার সম্ভবনা রয়েছে। তা হলো জ্বালানি তেল শোধনাগার স্থাপন। বাংলাদেশ কুয়েত থেকে বিপুল পরিমাণ জ্বালানি তেল আমদানি করে থাকে। কুয়েতে দায়িত্ব পালনকারী একজন সাবেক রাষ্ট্রদূত এ প্রসঙ্গে জানান, আমদানি করা অপরিশোধিত ওই তেল শোধন করার লক্ষ্যে বাংলাদেশে একটি তেল শোধনাগার গড়ে তোলার জন্য কুয়েতের সহায়তা চাওয়া হবে। আর অনেকেই মনে করছেন, কুয়েতে বহুদিন যাবত আটকে থাকা বাংলাদেশিদের ভিসাপ্রদান প্রক্রিয়া অর্থাৎ নতুন করে বাংলাদেশি শ্রমিক নেওয়ার প্রক্রিয়া ফের শুরু হতে পারে এ সফর সূত্রে। তাই, বাংলাদেশ থেকে কুয়েত দক্ষ শ্রমিক নেয়ার আগ্রহ দেখালে এ সংক্রান্ত চুক্তির প্রস্তাব উত্থাপন করা হবে। বিশেষ করে বাংলাদেশি শ্রমিকদের জন্য কুয়েতের ভিসা উন্মুক্ত হওয়ার খবর শুনতে উন্মুখ হয়ে আছেন বিদেশ গমন প্রত্যাশী লাখ লাখ শ্রমিক।

উল্লেখ্য, বৈধ হিসেব মতে কুয়েতে বর্তমানে প্রায় ১ লাখ ৮০ হাজার বাংলাদেশি শ্রমিক রয়েছে। সাদ্দামের দখল থেকে মুক্ত হবার পর কুয়েতের পুনর্গঠন এবং উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে বাংলাদেশ বিশেষ করে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী বিশেষ অবদান রাখে। দেশটির চলমান সরকারি উন্নয়ন কার্যক্রমে বাংলাদেশের প্রায় ৪ হাজার দক্ষ জনশক্তি নিয়োজিত রয়েছে বিভিন্ন ক্ষেত্রে। তবে শেষ পর্যন্ত নয়া শ্রমিক নেয়ার দিকে কুয়েত সত্যি আগ্রহ দেখাবে কি না- তা নিয়ে অনেকেই সন্দিহান রয়েছেন।

ঢাকায় শেখ জাবেরের রাজকীয় সম্বর্ধনা
মঙ্গলবার কুয়েতের প্রধানমন্ত্রী শেখ জাবের আল-মুবারক আল-হামাদ আল-সাবাহকে ঢাকায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে স্বাগত জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় শেখ জাবেরকে ফুলের তোড়া উপহার দেওয়া হয়।

বিকেল পাঁচটার কিছু পরে একটি বিশেষ বিমানে সফরসঙ্গীদেরসহ ঢাকায় অবতরণ করেন কুয়েতী প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে প্রাথমিক কুশল বিনিময়ের পর শেখ জাবেরকে লাল গালিচা সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

এসময় দুই দেশের জাতীয় সংগীত পরিবেশনের আবহে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও বিমানবাহিনীর সুসজ্জিত একটি দল কুয়েতী প্রধানমন্ত্রীকে গার্ড অব অনার এবং রাষ্ট্রীয় সালাম প্রদান করে।

এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কুয়েতের প্রধানমন্ত্রীকে তার মন্ত্রিসভার সদস্যসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রের শীর্ষ ব্যক্তিদের পরিচয় করিয়ে দেন। শেখ জাবেরও তার উচ্চ পর্যায়ের সফরসঙ্গীদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী, প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি, প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি উপদেষ্টা তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী, বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এসময় উপস্থিত ছিলেন। আরও উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব শফিউল আলম, তিন বাহিনীর প্রধানেরা, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব, পুলিশের আইজি, ডিপ্লোমেটিক কোরের ডিন, ঢাকায় নিযুক্ত কুয়েতের রাষ্ট্রদূত, কুয়েতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত, প্রধানমন্ত্রীর প্রেসসচিব এবং উচ্চপদস্থ সরকারি ও বেসরকারি কর্মকর্তারা।

বিমানবন্দরে উষ্ণ অভ্যর্থনা শেষে কুয়েতের প্রধানমন্ত্রীকে মোটর শোভাযাত্রা সহকারে বিমানবন্দর সড়কে অবস্থিত লা মেরিডিয়ান হোটেলে নেওয়া হয়। তিনদিনের ঢাকা সফরকালে তিনি এখানেই অবস্থান করবেন।

সফরসঙ্গীরা
কুয়েতের প্রধানমন্ত্রী শেখ জাবের আল-মুবারক আল-হামাদ আল-সাবাহর সফরসঙ্গীদের মধ্যে আছেন, পররাষ্ট্র মন্ত্রী শেখ সাবাহ খালেদ আল-হামাদ আল-সাবাহ, অর্থ ও ভারপ্রাপ্ত তেল মন্ত্রী আনাস খালেদ আল-সাবাহ, শিক্ষা মন্ত্রী ড. বদর হামাদ আল-ইসা এবং পররাষ্ট্র বিষয়ক উপ প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রদূত খালেদ সুলায়মান আল-জারাল্লাহ। এছাড়া কুয়েত চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন একটি ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দলও শেখ জাবেরের সঙ্গে সফর করছেন।

৩২ নম্বরে যাবেন শেখ জাবের
ঢাকায় অবস্থানকালে শেখ জাবের আল-মুবারক আল-হামাদ আল-সাবাহ মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে পুষ্পাঞ্জলি অর্পণ এবং ধানমণ্ডি ৩২ নম্বর সড়কে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন করবেন। এসময় সেখানে রক্ষিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে বাঙালি জাতির জনকের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন।

শেখ জাবের জাতীয় সংসদের চলতি অধিবেশনের কার্যক্রমও পরিদর্শন করবেন এবং হোটেল সোনারগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আয়োজিত নৈশভোজে যোগ দেবেন। এছাড়া জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদের কুয়েতি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের কথা রয়েছে।

নিউজওয়ান২৪.কম/আরকে

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত