ঢাকা, ২৫ মে, ২০২০
সর্বশেষ:
সেহরি ও ইফতারের সময় সূচি : ঢাকায় প্রথম রোজার সেহরির শেষ সময় রাত ৪টা ৫ মিনিটে আর ইফতার হবে সন্ধ্যা ৬টা ২৮ মিনিটে। আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুম (০১৭০০৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন নম্বরে (০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫, ০১৯৪৪৩৩৩২২২, ০১৫৫০০৬৪৯০১–০৫) যোগাযোগ করা যাবে। এ ছাড়া করোনাসংক্রান্ত তথ্য জানতে বা সহযোগিতা পেতে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ এবং ৩৩৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। অনলাইনে করোনা নিয়ে যোগাযোগ করতে আইইডিসিআরের ই-মেইল [email protected] এবং ফেসবুক পেজে (Iedcr,COVID19 Control Room) যোগাযোগ করা যাবে। জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

করোনা জরিপ : মৃতের সংখ্যা ৭৪ হাজার ছাড়ালো

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৩:২২, ৭ এপ্রিল ২০২০  

বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরো ৩৫ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হওয়ায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২৩ জনে, এর মধ্যে ১২ জন মারা গেছে। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৩৩ জন

বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরো ৩৫ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হওয়ায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২৩ জনে, এর মধ্যে ১২ জন মারা গেছে। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৩৩ জন


প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাসে প্রতিনিয়তই ভয়াবহ মাত্রায় বেড়ে চলেছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা।

আন্তর্জাতিক জরিপ পর্যালোচনাকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী এখন পর্যন্ত বিশ্বে ৭৪ হাজার ১৮২ জন করোনাভাইরাসে প্রাণ হারিয়েছেন। এছাড়া আক্রান্ত হয়েছেন ১৩ লাখ ৩৭ হাজার ৪১৬ জন।

তবে স্বস্তির খবর হচ্ছে, এর মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ২ লাখ ৭৭ হাজার ৭৫৫ জন। এবং এই সংখ্যা ক্রমশই বাড়ছে।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনে বৈশ্বিক এ মহামারির প্রাদুর্ভাব শুরু হলেও ভাইরাসটিতে সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে ইতালিতে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১৫ হাজার ৮৮৭ লোক মারা গেছে, আর আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ২৪ হাজার ৯৪৮ জন।

মৃত্যুতে ইতালির পরই রয়েছে স্পেনের অবস্থান। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১৩ হাজার ১৬৯ জন মারা গেছে, আর আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ৩৫ হাজার ৩২ জন।

তবে করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে বিশ্বের সব দেশকে ছাড়িয়ে গেছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে বর্তমানে ৩ লাখ ৪০ হাজার ১৬৯ জন আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৯ হাজার ৭০৫ জনের।

করোনার উৎপত্তিস্থল চীনে আক্রান্ত হয়েছেন ৮১ হাজার ৭০৮ জন, মারা গেছে ৩ হাজার ৩৩১ জন।

ইউরোপের আরেক দেশ ফ্রান্সে এ পর্যন্ত ৯২ হাজার ৮৩৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ৮ হাজার ৭৮ জনের।

এছাড়া জার্মানিতেও প্রতিদিন বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ১ হাজার ৮৯ জন, আর মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৬১২ জনের।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে ইউরোপের প্রায় সব দেশ লকডাউন। যুক্তরাষ্ট্রের অর্ধেকের বেশি মানুষ ঘরবন্দী। এ রকম লকডাউন চলছে এশিয়া ও আফ্রিকাসহ অন্যান্য মহাদেশেও।

এশিয়ার মধ্যে ইরানের অবস্থা সবচেয়ে খারাপ। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ১৫১ জনের মৃত্যু হয়েছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৭৩৯ জনে, আর মোট আক্রান্ত হয়েছে ৬০ হাজার ৫০০ জন।

ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৪ হাজার ৬৯৩ জনে দাঁড়িয়েছে, মারা গেছে ১২৯ জন। পাকিস্তানে মৃতের সংখ্যা ৫২ জন, আক্রান্ত ৩ হাজার ৬৫৮ জন।

এদিকে বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরো ৩৫ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হওয়ায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২৩ জনে, এর মধ্যে ১২ জন মারা গেছে। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৩৩ জন।

নিউজওয়ান২৪.কম/এমজেড

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত