ঢাকা, ২৫ মে, ২০২০
সর্বশেষ:
সেহরি ও ইফতারের সময় সূচি : ঢাকায় প্রথম রোজার সেহরির শেষ সময় রাত ৪টা ৫ মিনিটে আর ইফতার হবে সন্ধ্যা ৬টা ২৮ মিনিটে। আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুম (০১৭০০৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন নম্বরে (০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫, ০১৯৪৪৩৩৩২২২, ০১৫৫০০৬৪৯০১–০৫) যোগাযোগ করা যাবে। এ ছাড়া করোনাসংক্রান্ত তথ্য জানতে বা সহযোগিতা পেতে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ এবং ৩৩৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। অনলাইনে করোনা নিয়ে যোগাযোগ করতে আইইডিসিআরের ই-মেইল [email protected] এবং ফেসবুক পেজে (Iedcr,COVID19 Control Room) যোগাযোগ করা যাবে। জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

করোনা জরিপ : বেড়েই চলেছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:০৩, ৫ এপ্রিল ২০২০  

দেশে করোনাভাইরাসে শনাক্ত হওয়া ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭০ জনে। আটজন এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। সুস্থ হয়েছেন মোট ৩০ জন।

দেশে করোনাভাইরাসে শনাক্ত হওয়া ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭০ জনে। আটজন এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। সুস্থ হয়েছেন মোট ৩০ জন।


প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাসে প্রতিনিয়তই ভয়াবহ মাত্রায় বেড়ে চলেছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। এখন পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে এ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ১২ লাখ এক হাজার ৯৩৩ জন এবং মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে সাড়ে ৬৪ হাজার। আন্তর্জাতিক জরিপ পর্যালোচনাকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটার এ তথ্য জানিয়েছে।

সংস্থাটির ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যানুযায়ী, রোববার (৫ এপ্রিল) সকাল পর্যন্ত বিশ্বে করোনাভাইরাসে প্রাণ হারিয়েছেন ৬৪ হাজার ৭২৭ জন। অপরদিকে ২ লাখ ৪৬ হাজার ৬৩৮ জন চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

এখন পর্যন্ত তিনটি দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা লাখ ছাড়িয়েছে। দেশগুলো হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র, ইতালি ও স্পেন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে তিন লাখ ১১ হাজার ৩৫৭ জন এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এতে সংক্রমিত হয়ে মারা গেছেন ৮ হাজার ৪৫২ জন।

ইতালিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ২৪ হাজার ৬৩২ জন এবং মারা গেছেন ১৫ হাজার ৩৬২ জন। তবে মৃত্যু এবং আক্রান্তের সংখ্যায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে স্পেন। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ১১ হাজার ৯৪৭ জন। আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ২৬ হাজার ১৬৪ জন।

ইউরোপের আরেক দেশ ফ্রান্সে এ পর্যন্ত ৮৯ হাজার ৯৫৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। গেল ২৪ ঘণ্টায় সেখানে প্রাণ হারিয়েছেন ১ হাজার ৫৩ জন। দেশটিতে করোনায় মোট মৃত্যু হয়েছে ৭ হাজার ৫৬০ জনের। এছাড়া জার্মানিতেও প্রতিদিন বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৯৬ হাজার ৯২ জন, আর মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৪৪৪ জনের।

এশিয়ার মধ্যে ইরানের অবস্থা সবচেয়ে খারাপ। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ১৫৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৪৫২ জন, আর মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৫৫ হাজার ৭৪৩ জন।

ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৩ হাজার ৫৮৮ জনে দাঁড়িয়েছে, মারা গেছেন ৯৯ জন। পাকিস্তানে মৃতের সংখ্যা ৪১ জন, আক্রান্ত ২ হাজার ৮১৮ জন।

এদিকে বাংলাদেশ সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) তথ্য অনুযায়ী, শনিবার (৪ এপ্রিল) পর্যন্ত দেশে করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়া ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭০ জনে। এখন পর্যন্ত দেশে আটজন এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। সুস্থ হয়েছেন মোট ৩০ জন।

নিউজওয়ান২৪.কম/এমজেড

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত