ঢাকা, ০৮ এপ্রিল, ২০২০
সর্বশেষ:
আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুম (০১৭০০৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন নম্বরে (০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫, ০১৯৪৪৩৩৩২২২, ০১৫৫০০৬৪৯০১–০৫) যোগাযোগ করা যাবে। এ ছাড়া করোনাসংক্রান্ত তথ্য জানতে বা সহযোগিতা পেতে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ এবং ৩৩৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। অনলাইনে করোনা নিয়ে যোগাযোগ করতে আইইডিসিআরের ই-মেইল [email protected] এবং ফেসবুক পেজে (Iedcr,COVID19 Control Room) যোগাযোগ করা যাবে। জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

করোনাভাইরাস: আইইডিসিআরে কন্ট্রোল রুম, হটলাইন

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০০:২৮, ৯ মার্চ ২০২০  

করোনাভাইরাস তথা কোভিড-১৯: আইইডিসিআরে কন্ট্রোল রুমের হটলাইন

করোনাভাইরাস তথা কোভিড-১৯: আইইডিসিআরে কন্ট্রোল রুমের হটলাইন


চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতি নোভেল করোনাভাইরাস তথা কোভিড-১৯-এ বাংলাদেশে তিন জনকে আক্রান্ত বলে শনাক্ত করা হয়েছে।

এ ঘোষণা দিয়ে আইইডিসিআর জানিয়েছে, এ পরিস্থিতিতে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। তবে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। 

স্বাস্থ্য অধিদফতরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতেও সবাইকে সতর্কতা অবলম্বন করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। এতে জানানো হয়েছে, কোভিড-১৯ নিয়ে কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। একইসঙ্গে এ বিষয়ক পরামর্শের জন্য খোলা হয়েছে হটলাইন।

রোববার (৮ মার্চ) স্বাস্থ্য অধিদফতরের ওই সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয় গণমাধ্যমে। এতে জানানো হয়েছে, জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) খোলা হয়েছে করোনা বিষয়ক কন্ট্রোল রুম। আর সন্দেহভাজন রোগীদের তথ্য প্রদান ও সংশ্লিষ্ট বিষয়ে পরামর্শের জন্য চারটি হটলাইন নম্বর খোলা হয়েছে। নম্বরগুলো হলো- ০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫।

এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাস মোকাবিলায় স্বাস্থ্য অধিদফতর যেসব পদক্ষেপ নিয়েছে, তাও তুলে ধরা হয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে। এতে বলা হয়েছে— স্থল, জল ও বিমানবন্দরগুলোতে সন্দেহভাজন রোগীদের আইসোলেশনে (সবার থেকে বিচ্ছিন্ন রাখা) রাখার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, সন্দেহভাজনদের পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে মহাখালীতে আইইডিসিআরে।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছাকাছি ২০০ শয্যার বাংলাদেশ-কোরিয়া মৈত্রী হাসপাতালকে সম্পূর্ণভাবে প্রস্তুত করেছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। 

এছাড়া রাজধানী ঢাকার সব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আলাদা করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ড এবং সারাদেশের সব মেডিকেল কলেজ ও জেলা সদর হাসপাতালে আলাদা ওয়ার্ড/শয্যা তৈরির নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানিয়েছে, ঢাকাসহ দেশের সব বেসরকারি হাসপাতালে আলাদা আইসোলেশন কেবিন/ওয়ার্ড তৈরি করা হচ্ছে। স্বাস্থ্যসেবায় নিয়োজিত জনবলের নিরাপত্তার জন্য ডিসপোজেবল পারসোনাল প্রোটেকটিভ ইক্যুইপমেন্টস আমদানি ও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য বিশেষ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এছাড়া জনসাধারণের সচেতনতা বাড়াতে পোস্টার/লিফলেট তৈরি ও বিলি এবং সব ধরনের প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত সচেতনতা বার্তা প্রচার করছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। করোনা মোকাবিলায় কমিউনিটি সম্পৃক্ত করতেও বিশেষ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে অধিদফতর।

বর্তমান পরিস্থিতিতে জনসাধারণকে আতঙ্কিত না হয়ে সচেতনতা বাড়ানো ও প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা অনুশীলনের মাধ্যমে নিজেকে ও পরিবারকে সুরক্ষিত রাখার পরামর্শও দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

নিউজওয়ান২৪.কম/এমজেড

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত