ঢাকা, ২৮ মে, ২০২০
সর্বশেষ:
সেহরি ও ইফতারের সময় সূচি : ঢাকায় প্রথম রোজার সেহরির শেষ সময় রাত ৪টা ৫ মিনিটে আর ইফতার হবে সন্ধ্যা ৬টা ২৮ মিনিটে। আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুম (০১৭০০৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন নম্বরে (০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫, ০১৯৪৪৩৩৩২২২, ০১৫৫০০৬৪৯০১–০৫) যোগাযোগ করা যাবে। এ ছাড়া করোনাসংক্রান্ত তথ্য জানতে বা সহযোগিতা পেতে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ এবং ৩৩৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। অনলাইনে করোনা নিয়ে যোগাযোগ করতে আইইডিসিআরের ই-মেইল [email protected] এবং ফেসবুক পেজে (Iedcr,COVID19 Control Room) যোগাযোগ করা যাবে। জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

যুক্তরাষ্ট্রে বিষাক্ত ইঞ্জেকশনে জোরা খুনির মৃত্যুদণ্ড কার্যকর

ইত্যাদি ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৭:০০, ৩ মে ২০১৯  

স্কটি মোরো                    -ফাইল ফটো

স্কটি মোরো -ফাইল ফটো

সাবেক প্রেমিকাসহ জোরা খুনের দায়ে যুক্তরাষ্ট্রে স্কটি মোরো নামের এক ব্যক্তিকে বিষাক্ত ইনজেকশন পুশ করে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের সংশোধন বিভাগের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ৫২ বছর বয়সী স্কটি মোরোকে জ্যাকসনের একটি কারাগারে গতকাল (বৃহস্পতিবার) স্থানীয় সময় রাত ৯টা ৩৮ মিনিটে প্রাণঘাতী ইনজেকশন দিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়। মোরে তার সাবেক প্র্রেমিকা ও প্রেমিকার এক বান্ধবীকে গুলি করে হত্যা করেছিলেন।

শুক্রবার এমিরটেস২৪৭.কম জানায়, ১৯৯৪ সালের ক্রিসমাসের দিনকয়েক পরে একদিন মোরো তার প্রাক্তন বান্ধবীর ঘরে ঢুকে বান্ধবীসহ আরো দুই নারীকে গুলি করে। এসময় তার বান্ধবীর পাঁচ বছর বয়সী ছেলে সেখানে উপস্থিত ছিল। শিশুটির সামনেই তার মাকে হত্যা করে খুনি। গুলিবিদ্ধ মোরের প্রেমিকার এক বান্ধবীও মারা যান এতে।

এই জোরা খুনের দায়ে ১৯৯৯ সালে তাকে দোষী সাব্যস্ত করে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়। তবে তার পক্ষে যুক্তিতর্ক তুলে ধরার ক্ষেত্রে আইনজীবীর ব্যর্থতার বিবেচনায় ২০১১ সালে ওই রায় পরিবর্তিত হয়। রায় রহিতকরণের আর্জিতে বলা হয় শিশুকালে মোরো নিপীড়ণ ও ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন যা তার আইনজীবী আদালতের সামনে উপস্থাপন করতে ব্যর্থ হয়েছিলেন।

তবে জর্জিয়ার সুপ্রিম কোর্ট পরে ওই রায় প্রত্যাখ্যান করে ১৯৯৯ সালের আসল রায় বহাল রাখে।

জর্জিয়ার স্টেট বোর্ড অব পারডনস অ্যান্ড প্যারোলস গত বুধবার মোরোর পক্ষে করা তার একদল সমর্থকের ক্ষমার আবেদনটি নাকচ করে দেয়। ওই আবেদনে বলা হয়েছিল যে মোরো একজন আদর্শ কয়েদি হিসেবে নিজেকে প্রমাণিত করেছেন এবং তিনি তার কৃত অপরাধের জন্য অনুতপ্ত।

গত বৃহস্পতিবার মার্কিন সুপ্রিম কোর্টে মোরোর পক্ষে চূড়ান্ত ক্ষমার আবেদন করা হলে সেটিও প্র্রত্যাখ্যাত হয়। ফলে একইদিন এ রায় কার্যকর হয়। 

যুক্তরাষ্ট্রে ২০১৯ সালে এখন পর্যন্ত মোরোকে নিয়ে পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হলো।

নিউজওয়ান২৪.কম/আরকে  

ইত্যাদি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত