ঢাকা, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০
সর্বশেষ:
আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুম (০১৭০০৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন নম্বরে (০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫, ০১৯৪৪৩৩৩২২২, ০১৫৫০০৬৪৯০১–০৫) যোগাযোগ করা যাবে। এ ছাড়া করোনাসংক্রান্ত তথ্য জানতে বা সহযোগিতা পেতে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ এবং ৩৩৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। অনলাইনে করোনা নিয়ে যোগাযোগ করতে আইইডিসিআরের ই-মেইল [email protected] এবং ফেসবুক পেজে (Iedcr,COVID19 Control Room) যোগাযোগ করা যাবে। জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

‘ধর্ষক’ সাধুবাবা নিত্যানন্দ গড়েছেন ‘সার্বভৌম রাষ্ট্র’ কৈলাশ!

ইত্যাদি ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৯:৪১, ৪ ডিসেম্বর ২০১৯  

ধর্ষণ, অপহরণ ও নারী-পুরুষদের আশ্রমে আটকে রাখার মামলায় পলাতক ভারতের স্বঘোষিত এক হিন্দু গুরু একটি নতুন ‘রাষ্ট্র’ প্রতিষ্ঠা করেছেন বলে খবর এসেছে, যার নিজস্ব পতাকা, সংবিধান ও জাতীয় প্রতীক রয়েছে।  নিত্যানন্দ নামে সাধারণ্যে পরিচিত ও বর্তমানে পলাতক এই কথিত গুরু নিজেকে 'অবতার' দাবি করে থাকেন।   

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি'র জানিয়েছে, নিত্যানন্দ প্রতিষ্ঠিত ‘সার্বভৌম হিন্দু রাষ্ট্রে’র প্রধানমন্ত্রীসহ মন্ত্রিপরিষদও আছে বলে কৈলাশ নামে একটি ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে।  কৈলাশ নামে তথাকথিত ‘মহত্তম হিন্দু রাষ্ট্রের’ জন্য অনুদানও চাওয়া হয়েছে দানশীলদের কাছ থেকে।  এর মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা দেশটির নাগরিকত্ব পেতে পারেন বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

এদিকে, সাইবার বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, একবছর আগে তৈরি ওয়েবসাইটটি পানামায় নিবন্ধিত, যুক্তরাষ্ট্রের ডালাসে এর আইপি লোকেশন শনাক্ত হয়েছে।

তথাকথিত দেশটির ভৌগলিক অবস্থান সম্পর্কে কোনো ইঙ্গিত দেওয়া না হলেও ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, ‌কৈলাশ একটি সীমানাবিহীন দেশ।  এর নাগরিক সারা বিশ্বের বঞ্চিত হিন্দুরা, যারা নিজ দেশে খাঁটি উপায়ে হিন্দু ধর্ম পালনের অধিকার হারিয়েছেন। '

তবে অসমর্থিত সূত্রে ভারতীয় অপর মিডিয়া বিজনেস টুডের খবরে বলা হয়েছে, ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর কাছে দক্ষিণ আমেরিকার পশ্চিম উপকূলের দেশ ইকুয়েডরের কাছ থেকে জমি কিনে নিত্যানন্দ এ রাষ্ট্র গড়েছেন।

এছাড়া নিত্যানন্দ ভারত থেকে নেপাল হয়ে ইকুয়েডরে পালিয়েছে বলে এর আগে ইন্ডিয়া টুডে খবর দিযেছে।

নিত্যানন্দের ওয়েবসাইট কৈলাশে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, এই হিন্দু রাষ্ট্রের নিজস্ব পতাকার নাম ‘ঋষভ ধ্বজা’ যাতে নিত্যানন্দের নিজের ও হিন্দু দেবতা শিবের বাহন ‘নন্দী’র ছবি রয়েছে। এখানে একটি বিষয় লক্ষ্যণীয়- নিত্যানন্দ ঘোষণা করেছেন তার ‌হিন্দু জাতিভিত্তিক কৈলাশ রাষ্ট্রে হিন্দি ভাষার কোনো থাকবে না। এর অফিসিয়াল ভাষা হবে ইংরেজি, সংস্কৃত ও তামিল।    

ওয়েবসাইটটিতে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, কৈলাশে শিক্ষা, রাজস্ব ও বাণিজ্যসহ সরকারি নানা বিভাগ আছে।  সনাতন ধর্মকে পুনরুউজ্জীবিত করার জন্য রয়েছে ‘ডিপার্টমেন্ট অব এনলাইটেনড সিভিলাইজেশন’ নামের একটি আলাদা বিভাগ।

তথাকথিত দেশটিতে ‘ধার্মিক অর্থনৈতিক ব্যবস্থায়’ হিন্দু ইনভেস্টমেন্ট অ্যান্ড রিজার্ভ ব্যাংক আছে বলেও দাবি করা হয়েছে।  ওই ব্যাংকে ক্রিপ্টোকারেন্সিও চলে বলে দাবি করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, বিভিন্ন কারণে নিন্দিত আবার একশ্রেণির মানুষের কাছে প্রিয় এই স্বামী নিত্যানন্দের বিরুদ্ধে ভারতের কর্ণাটক রাজ্যে একটি ধর্ষণের মামলা রয়েছে। পাশাপাশি তার আহমেদাবাদের আশ্রমে শিশুদের আটকে রেখে জোর করে টাকা সংগ্রহের কাজে লাগানোর অভিযোগে তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। অপহরণের অভিযোগে নিত্যানন্দের দুজন শিষ্যকে গ্রেপ্তারও করেছে পুলিশ।
নিউজওয়ান২৪.কম/কেআর

ইত্যাদি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত