ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
সর্বশেষ:
আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন ডিসেম্বরে হেল্পলাইন ১৬২৬৩ এ কল করলেই ডাক্তারের পরামর্শ ডেঙ্গি নিয়ন্ত্রণে একটি সমন্বিত পদক্ষেপ খুবই জরুরি

সবচেয়ে কম ধূমপায়ীর দেশ

স্বাস্থ্য ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৩৮, ১ আগস্ট ২০১৫   আপডেট: ১৩:২৪, ১৮ মে ২০১৬

সাবেক সোভিযেত ব্লকভুক্ত রাষ্ট্র তুর্কমেনিস্তান হচ্ছে দুনিয়ার সবচেয়ে কম ধূমপায়ীদের দেশ। খুব স্বাস্থ্য সচেতন এই জাতির দশ ভাগেরও কম লোক ধূমপায়ী। এ তথ্য জানিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্ত্য সংস্তা প্রধান মার্গারেট চ্যান।

তিনি সম্প্রতি দেশটি সফরকালে একথা বলেন।

দেশটির রাজধানী আশগাবাতে আয়োজিত এক অনরুষ্ঠানে চ্যান দেশটির স্বৈরশাসক গুরবাংগুলি বের্দিমুখামেদভকে বলেন, “হুর সাম্প্রতিক এক পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে তুর্কমেনিস্তানের মাত্র ৮ ভাগ মানুষ ধূমপান করে থাকে। বিশ্বে জাতি হিসেবে এটা ধূমপানের সবচেয়ে কম মাত্রা। এই সাফল্যের জন্য আমি আপনাকে অভিনন্দন জানাই।"

২০১১ সালে তামাক নিয়ন্ত্রণ নীতিমালা অনুমোদিত হয় মধ্য এশিয়ার দেশটিতে। এসময় প্রকাশ্য স্থান ধূমপান নিষিদ্ধ করা হয়। ১৯৯০ সালে এক হিসেবে দেখা যায় দেশটিতে ১৫ বছরের ঊর্দ্ধে শতকরা ২৭ ভাগ পুরুষ ও ১ ভাগ নারী ধূমপায়ী ছিল। এক দশক পর প্রকাশ্য স্থানে, সরকারি ভবন সমূহে এবং সামরিক বাহিনীতে নিষিদ্ধ হয় ধূমপান। একই সঙ্গে বন্ধ করা হয় তামাকজাক পণ্যের বিজ্ঞাপন প্রচারও।

২০১২ সালের এক হিসেবে দেখা গেছে, বিশ্বে ১৫ বছরের বেশি বয়সী পুরুষদের ৩১.১ এবং নারীদের ৬.২ ভাগ ধূমপায়ী ছিল।

সরকারি মুখপাত্র ভেরা লুইজা ডা কস্টা ই সিলভা ওই সম্মেলনে জানান, আগামী কয়েক বছরের মধ্যে দেশটিতে ধূমপায়ীর সংখ্যা ৫ ভাগে নামিয়ে আনার চ্যালেঞ্জ নিয়েছে দেশটি।

গত এপ্রিলে ‘স্বাস্থ্য ও সুখ’ স্লোগানকে সামনে রেখে দেশটিতে মাসব্যাপী পালন করা হয় গণ খেলাধূলা ও অনুশীলন উৎসব। দেশটির জনসংখ্যা ৫০ লাখের বেশি এবং তাদের সিংহভাগই খুব স্বাস্থ্য সচেতন।

নিউজওয়ান২৪.কম/এমএস

লাইফস্টাইল বিভাগের সর্বাধিক পঠিত