ঢাকা, ০৭ এপ্রিল, ২০২০
সর্বশেষ:
আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুম (০১৭০০৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন নম্বরে (০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫, ০১৯৪৪৩৩৩২২২, ০১৫৫০০৬৪৯০১–০৫) যোগাযোগ করা যাবে। এ ছাড়া করোনাসংক্রান্ত তথ্য জানতে বা সহযোগিতা পেতে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ এবং ৩৩৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। অনলাইনে করোনা নিয়ে যোগাযোগ করতে আইইডিসিআরের ই-মেইল [email protected] এবং ফেসবুক পেজে (Iedcr,COVID19 Control Room) যোগাযোগ করা যাবে। জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

শিশুকে ফ্লাইং কিস: আমিরাতি তরুণের জেল

ফিচার ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৬:১১, ২৫ মে ২০১৫   আপডেট: ১২:০৯, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৫

গাড়ি চালাচ্ছেন আরব আমিরাতের এক আধুনিকি তরুণ। অফিসের পানে দ্রুত ছুটছেন। যাত্রাপথে ট্রাফিক সিগন্যালে থামলো গাড়িটি। আশেপাশে এবং সামনে-পেছনে তখন অনেক গাড়িই থেমেছে। তরুণ তাকিয়ে দেখেন, তার পাশের গাড়িটির চালক একজন নারী। ওই গাড়িটিতে বসে আছে ফুটফুটে সুন্দর একটি শিশুও।

অবাক চোখে তাকিয়ে আছে শিশুটি তরুণের দিকে। স্নিগ্ধ সুন্দর সকালে অফিস যাত্রাপথে এমন সুন্দর শিশুর কৌতুহলী নিষ্পাপ দৃষ্টি আকৃষ্ট করলো তাকে। মনটা ভাল হয়ৈ গেলো খুব। তিনি শিশুটির উদ্দেশে ছুড়ে দিলেন উড়ন্ত চুমু (ফ্লাইং কিস)। কিন্তু নিখাদ মনে, স্বর্গীয় সৌন্দর্যে উদ্ভাসিত শিশুকে দেয়া তার উড়ন্তু চুমুর ভুল অনুবাদ হয়ে গেল পাশে থাকা মমতাময়ী মায়ের।

ট্রাফিক সিগন্যালে সবুজ বাতি জ্বললে ছুটতে শুরু করে সব গাড়ি। তরুণ ছেড়ে দিলেন নিজের গাড়ি। শিশুর মাও চিরতা গেলার ভাব ধরে রওনা করলেন তার গাড়িতে। তবে তিনি ওই তরুণের গাড়ির লাইসেন্স নম্বর টুকে নেন। পরে মামলা ঠুকে দেন আদালতে।

একটি ফ্লাইং কিসের জন্য বিচারক ওই তরুণকে ছয় মাসের জন্য পাঠিয়ে দেন লালঘরে। সম্প্রতি আরব আমিরাতে ঘটা এ ঘটনা বেশ আলোড়ন তুলেছে।

আরকে/

লাইফস্টাইল বিভাগের সর্বাধিক পঠিত