ঢাকা, ১৩ আগস্ট, ২০২০
সর্বশেষ:
সেহরি ও ইফতারের সময় সূচি : ঢাকায় প্রথম রোজার সেহরির শেষ সময় রাত ৪টা ৫ মিনিটে আর ইফতার হবে সন্ধ্যা ৬টা ২৮ মিনিটে। আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুম (০১৭০০৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন নম্বরে (০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫, ০১৯৪৪৩৩৩২২২, ০১৫৫০০৬৪৯০১–০৫) যোগাযোগ করা যাবে। এ ছাড়া করোনাসংক্রান্ত তথ্য জানতে বা সহযোগিতা পেতে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ এবং ৩৩৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। অনলাইনে করোনা নিয়ে যোগাযোগ করতে আইইডিসিআরের ই-মেইল [email protected] এবং ফেসবুক পেজে (Iedcr,COVID19 Control Room) যোগাযোগ করা যাবে। জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

গর্ভকালীন পোশাক

লাইফস্টাইল ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৮:৩৬, ১০ মে ২০১৪   আপডেট: ২০:১৯, ২৮ মে ২০১৬

মাকে ভালোবাসা জানানোর জন্য কোনো দিনের প্রয়োজন হয় না। তবে পৃথিবীর সবাই মিলে একটু আলাদা করে ভালোবাসা এবং শ্রদ্ধা জানানোর জন্যই মা দিবসের সূত্রপাত।

মা দিবস উপলক্ষ্যে অনেক রকম আয়োজন চলে। আমাদের দেশের ফ্যাশন হাউজগুলোও পিছিয়ে থাকে না। মায়ের জন্য উপহারের পশরা সাজিয়ে বসে তারা। গিফটশপগুলোতেও পাওয়া যায় মা দিবসের কার্ড, মগ, শোপিসসহ অন্যন্য উপহার।

তবে সে ধারায় এবার কিছুটা ভিন্ন আয়োজনে মেতেছে দেশীয় ফ্যাশন হাউজ সাদাকালো। হবু মাদের কথা ভেবেই তারা সাজিয়েছে মা দিবসের আয়োজন।

বিশ্ব মা দিবস সামনে রেখে তারা গর্ভকালীন পোশাক প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে। বাংলাদেশে এই ধরনের উদ্যোগ এবারই প্রথম।

এই উপলক্ষ্যে ২ মে ২০১৪ শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় ধানমণ্ডির আঁলিয়স ফ্রঁসেজের উঠানে অনুষ্ঠিত হয় গর্ভকালীন পোশাকের ফ্যাশন শো।

আয়োজন প্রসঙ্গে সাদাকালোর প্রতিষ্ঠাতা তাহসীনা শাহীন বলেন, “এখন কর্মজীবি নারীর সংখ্যা অনেক। প্রতিদিনই ঘরের বাইরে তাদের কাজে বের হতে হয়। তাই গর্ভকালীন সময়ে বিশেষ পোশাক নিয়েও ভাবতে হয় তাদের। আর এ বিষয়টি মাথায় রেখেই এ উদ্যোগ নিয়েছে ‘সাদাকালো’।”

জমকালো ফ্যাশন শো’র মাধ্যমে নতুন পোশাকের প্রদর্শনীতে ছিল ভিন্ন আমেজ। মাতৃত্বকালীন সময়ে বিভিন্ন ধাপ থাকে। একেক ধাপে একেক রকম পোশাকের আয়োজন।

অফিস, কেনাকাটা, বিয়ের অনুষ্ঠান অথবা অন্যান্য অনুষ্ঠান— এই বিষয়গুলো মাথায় রেখে ৪টি ধাপে সাজানো হয়েছিলো প্রদর্শনীর উদ্বোধনী ফ্যাশন শো।

ঘরে, কর্মক্ষেত্রে, বাইরে এবং অনুষ্ঠানে পরার মতো আলাদা আলাদা পোশাক। গর্ভাবস্থার সাজে মডেলরা ফ্যাশন শো’র বিভিন্ন সারিতে সেগুলোই ফুটিয়ে তুলেছিল। যেহেতু মাতৃত্বকালীন ফ্যাশন শো, তাই ছিল না কোনো দ্রুতগতির বিড়াল-হন্টন।

ভিন্ন পরিবেশের সঙ্গে মিলিয়ে মডেলদের পোশাকের পরিবর্তনের পাশাপাশি তাদের পিছনের পর্দাতেও ফুটিয়ে তোলা হয়েছিলো সেই পরিবেশের ছবি।

“সাদাকালোর ডিজাইনাররা এই সময়ের শারীরিক পরিবর্তনের বিষয়টি মাথায় রেখেই প্রতিটি পোশাক ডিজাইন করেছে। বেছে নেয়া হয়েছে আরামদায়ক কাপড়” বললেন শাহীন।

লাইফস্টাইল বিভাগের সর্বাধিক পঠিত