ঢাকা, ০৩ আগস্ট, ২০২০
সর্বশেষ:
সেহরি ও ইফতারের সময় সূচি : ঢাকায় প্রথম রোজার সেহরির শেষ সময় রাত ৪টা ৫ মিনিটে আর ইফতার হবে সন্ধ্যা ৬টা ২৮ মিনিটে। আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুম (০১৭০০৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন নম্বরে (০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫, ০১৯৪৪৩৩৩২২২, ০১৫৫০০৬৪৯০১–০৫) যোগাযোগ করা যাবে। এ ছাড়া করোনাসংক্রান্ত তথ্য জানতে বা সহযোগিতা পেতে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ এবং ৩৩৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। অনলাইনে করোনা নিয়ে যোগাযোগ করতে আইইডিসিআরের ই-মেইল [email protected] এবং ফেসবুক পেজে (Iedcr,COVID19 Control Room) যোগাযোগ করা যাবে। জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

স্বপ্ন নয় বাস্তব: এসে গেছে বিশ্বের প্রথম থ্রিডি প্রিন্টেড প্লেন

বিজ্ঞান ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৪:৫০, ৫ জুন ২০১৬   আপডেট: ১২:১০, ১১ জুন ২০১৬

বিশ্বের প্রথম থ্রিডি প্রিন্টেড এয়ারক্রাফট থরকে চাক্ষুষ করে অনেকেই আনন্দে থর থর করে কাঁপছিলেন। ক্ষুদে এই প্লেনটি চলতি সপ্তাহে বার্লিন এয়ারশোতে প্রদর্শন করা হয়েছে। এয়ারবাস কোম্পানির বিস্ময়কর সৃষ্টি এই প্লেনটিই এখন বিশ্বের সর্বপ্রথম থ্রিডি প্রিন্টেড উড়োজাহাজ।

জানালাবিহীন উড়োজাহাজটির ওজন সাকুল্যে ২১ কেজি (৪৬ পাউন্ড)) এবং লম্বায় ৪ মিটারেরও কম (১৩ ফিট)। ড্রোন টাইপের এই বাহনটির থর (টিএইচওআর) নামটি রাখা হয়েছে ‘টেস্ট অব হাই-টেক অবজেকটিভস ইন রিয়েলিটি’ কথাটির আদ্যাক্ষর থেকে।

বিশাল সাদা রঙের দৃষ্টিনন্দন একটি উড়োজাহাজের ক্ষুদ্র সংস্করণ এটি।

ইউরোপের উড়োজাহাজ নির্মাতা জায়ান্ট এয়ারবাসের এই চালকবিহীন প্রপেলার এয়ারক্রাফট ভবিষ্যতের অ্যাভিয়েশন জগৎকে পাল্টে দিতে যাচ্ছে- এটা নিশ্চিত। এর ফলে সামনে এ ধরনের আরও অনেক উন্নতমানের কিছু করার রাস্তা খুলে গেল বলা যায়। ভবিষ্যতে থ্রিডি প্রিন্টারজাত এয়ারক্রাফট আমাদের সময়, জ্বালানি, পরিশ্রম আর টাকা ব্যাপকহারে বাঁচিয়ে দেবে- এটাও নিশ্চিত।

বার্লিনের দক্ষিণাঞ্চলের শোয়েনফেল্ড এয়ারপোর্টে আয়োজিত ইন্টারন্যাশনাল অ্যারোস্পেস এক্সিবিশন অ্যান্ড এয়ারশোতে উপস্থিত ডেটলেভ কনিগোরস্কি বলেন,  “থ্রিডি প্রযুক্তিতে আসলে কি কি করা সম্ভব- এটা তার একটা পরীক্ষা ছিল।” তিনি এয়ারবাসের থর এয়ারক্রাফট উন্নয়ন প্রকল্পের ইনচার্জ।

উড়োজাহাজটির বিভিন্ন অংশ  ভাগে ভাগে থ্রিডি প্রিন্টারে তৈরি করে পরে সংযোজন করা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে কনিগোরস্কি বলেন, “আমরা এখন দেখতে চাচ্ছি আমাদের উন্নয়ন প্রক্রিয়া এতটা প্রখর করতে যাতে করে উড়োজাহাজের খন্ঢ খণ্ড অংশ নয়- পুরো একটা উড়োজাহাই থ্রিডিতে বানানো যায়।”

থরের সবকিছু পলিএমাইড নামক উপাদান থেকে থ্রিডি প্রিন্টারে তৈরি হলেও শুধু এর বৈদ্যুতিক উপাদানগুলো আলাদা যোগ করা হয়েছে।

প্রধান প্রকৌশলী গুন্নার হাসে বলেন, “ক্ষুদে এই প্লেনটা চমৎকারভাবে ওড়ে আর খুবই ভারসাম্যপূর্ণও।” জার্মানির উত্তরাঞ্চরীয় শহর হামবুর্গে গত নভেম্বরে থরের প্রথম পরীক্ষামূলক উড়ান পরিচালনা করেন গুন্নার।

নিউজওয়ান২৪.কম/একে
 

মোবাইল-পিসি-টেক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত