ঢাকা, ১১ আগস্ট, ২০২০
সর্বশেষ:
সেহরি ও ইফতারের সময় সূচি : ঢাকায় প্রথম রোজার সেহরির শেষ সময় রাত ৪টা ৫ মিনিটে আর ইফতার হবে সন্ধ্যা ৬টা ২৮ মিনিটে। আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুম (০১৭০০৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন নম্বরে (০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫, ০১৯৪৪৩৩৩২২২, ০১৫৫০০৬৪৯০১–০৫) যোগাযোগ করা যাবে। এ ছাড়া করোনাসংক্রান্ত তথ্য জানতে বা সহযোগিতা পেতে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ এবং ৩৩৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। অনলাইনে করোনা নিয়ে যোগাযোগ করতে আইইডিসিআরের ই-মেইল [email protected] এবং ফেসবুক পেজে (Iedcr,COVID19 Control Room) যোগাযোগ করা যাবে। জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

সেনাবাহিনীর গাড়িতে গুলি, পাল্টা গুলিতে ইউপিডিএফ সদস্য নিহত

রাঙামাটি সংবাদদাতা

প্রকাশিত: ১৬:৩০, ২৩ আগস্ট ২০১৯  

পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে সেনাবাহিনীর গাড়িতে সন্ত্রাসীদের গুলি বর্ষণের পর সেনা সদস্যদের পাল্টা গুলিতে সুমন চাকমা নামে এক ইউপিডিএফ সদস্য নিহত হয়েছে। আজ (শুক্রবার) বেলা ১১টার দিকে উপজেলার বাঘাইহাট উজু বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, সুমন চাকমা বাঘাইহাট-সাজেক এলাকার শীর্ষ সন্ত্রাসী ও ইউপিডিএফ সদস্য। ইউপিডিএফের প্রসীত-খীসা গ্রুপের সদস্য সুমন নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শক্তিমান চাকমা হত্যা মামলার অন্যতম আসামি। রাঙ্গামাটি জেলার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার শফিউল্লাহ জানান, শুক্রবার বেলা পৌনে ১১টার দিকে বাঘাইহাট জোনের সেনা টহল দলের একটি পিকআপে সন্ত্রাসীরা গুলি বর্ষণ করলে সেনাসদস্যরা পাল্টা জবাব দেয়। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে সুমন চাকমা নিহত হন। পরে সুমনের কাছ থেকে একটি পিস্তল উদ্ধার করা হয়েছে। সন্ত্রাসীদের ধরতে টহল জোরদার করে অভিযান চালানো হচ্ছে ঘটনাস্থলের আশপাশে।


উল্লেখ্য, গত ১৮ আগস্ট রবিবার রাঙ্গামাটির রাজস্থলী উপজেলার গাইন্দা ইউনিয়নে সেনাবাহিনীর টহল দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। গাইন্দ্যা ইউনিয়নের পোয়াইথুপাড়া এলাকায় ওই হামলায় এক সেনাসদস্য নিহত এবং দুই জন আহত হন। সেই ঘটনার চার দিনের ব্যবধানে বাঘাইছড়িতে সেনাবাহিনীর ওপর এই হামলার ঘটনা ঘটলো।

রাঙামাটির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) শফিউল্লাহ জানান, শুক্রবার (২৩ আগস্ট) সকালে বাঘাইছড়ির সাজেক থানাধীন সীমানাছড়া এলাকার উজোবাজারে দুই সশস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রুপের মাঝে বন্দুকযুদ্ধের খবর পেয়ে সেনাবাহিনীর একটি টহল দল সেখানে যায়। তখন সন্ত্রাসীরা সেনাবাহিনীর গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি করে। একটি গুলিতে গাড়ির কাঁচ এবং আরেকটি গুলিতে গাড়ির বডি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এসময় সেনা সদস্যরাও পাল্টা গুলি ছুঁড়লে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে সেখানে সুমন চাকমা ওরফে কসাই সুমন নামে এক সন্ত্রাসীর মৃতদেহ পাওয়া যায়।
নিউজওয়ান২৪.কম/আরকে

আরও পড়ুন
স্বদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত