ঢাকা, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০
সর্বশেষ:
আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুম (০১৭০০৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন নম্বরে (০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫, ০১৯৪৪৩৩৩২২২, ০১৫৫০০৬৪৯০১–০৫) যোগাযোগ করা যাবে। এ ছাড়া করোনাসংক্রান্ত তথ্য জানতে বা সহযোগিতা পেতে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ এবং ৩৩৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। অনলাইনে করোনা নিয়ে যোগাযোগ করতে আইইডিসিআরের ই-মেইল [email protected] এবং ফেসবুক পেজে (Iedcr,COVID19 Control Room) যোগাযোগ করা যাবে। জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

সৃজিত-মিথিলার বিয়ে সম্পন্ন

শোবিজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২১:২৬, ৬ ডিসেম্বর ২০১৯  

মিথিলার হাতে আংটি পরিয়ে দিচ্ছেন সৃজিত -ছবি: সংগৃহীত

মিথিলার হাতে আংটি পরিয়ে দিচ্ছেন সৃজিত -ছবি: সংগৃহীত

প্রকৃতিতে হালকা শীত, সকালের মিষ্টি রোদ, দিন ছোট আর রাত বড় এ সব কিছুই জানান দিচ্ছে বিয়ের মৌসুম চলে এসেছে। মৌসুমের শুরুতেই শুক্রবার (৬ ডিসেম্বর) কলকাতার নির্মাতা সৃজিত মুখার্জীকে বিয়ে করলেন অভিনেত্রী রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা। 

আজ থেকে তাদের নতুন জীবন শুরু হলো। সন্ধ্যায় তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে বলে সংবাদ প্রকাশ করেছে পশ্চিমবঙ্গের একাধিক গণমাধ্যম।

এসময় বিয়ের পোশাকে সৃজিত ও মিথিলার বিয়ের ছবিও প্রকাশ্যে এসেছে। যে ছবিতে লাল জামদানি শাড়িতে দেখা গেছে মিথিলাকে। আর সৃজিত পরেছেন কালো পায়জামা ও পাঞ্জাবি, তার ওপরে লাল জহরকোট। ছবিটি প্রকাশ্যে আসার পর পর সোশাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে যায়। অনেকেই তাদের সেই ছবি শেয়ার করে শুভেচ্ছাও জানাচ্ছেন।

সৃজিত মুখার্জী ও রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা

ঘরোয়াভাবে সৃজিত-মিথিলার বিয়েতে দুই পরিবারের আত্মীয়-স্বজন ছাড়া তেমন আর কেউ থাকবেন না, এটা আগেই জানিয়েছিলেন তারা। সেই মোতাবেক তাদের বিয়েতে উপস্থিত ছিলেন সৃজিতের মা, দিদি, অভিনেতা রুদ্রনীল, শ্রীজাত, যীশু, নীলাঞ্জনা, অনুপম ও প্রিয়া। এছাড়া মিথিলার বাবা-মা, বোন, বোনের জামাই এবং মিথিলার মেয়ে আয়রাও উপস্থিত ছিলেন।

রাতে কলকাতার একটি হোটেলে সবাই মিলে খাবার খাবেন। শনিবার সকালেই তারা সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় যাবেন সৃজিত-মিথিলা। সেখানে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি রেজিস্ট্রেশন করবেন মিথিলা। এরপর সেখানে তারা এক সপ্তাহ থাকবেন। 

বহুদিন ধরেই কলকাতার নির্মাতা সৃজিত মুখার্জীর সঙ্গে মিথিলার প্রেমের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিলো। কিন্তু সব সময় সম্পর্কের বিষয়টি অস্বীকার করে এসেছেন তারা। গেল মাসেও গুঞ্জন উঠেছিলো যে, মিথিলার পরিবারের কাছে বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে বাংলাদেশে এসেছেন সৃজিত। এসময় দুজনকে ঢাকা আর্মি স্টেডিয়ামে ফোকফেস্ট-এও একসঙ্গে দেখা গেছে।

যদিও বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে বাংলাদেশে আসার বিষয়টি বরাবরের মতো সেসময় অস্বীকার করেছিলেন সৃজিত। কিন্তু এটা যে সত্যি সত্যিই বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে আসা ছিলো, তা আজ স্বীকার করেছেন সৃজিত-মিথিলা।

মূলত, অর্ণবের একটি মিউজিক ভিডিওতে কাজের সুবাদে সৃজিতের সঙ্গে মিথিলার দেখা হয়। এরপর ফেসবুকের মাধ্যমে সৃজিত এবং মিথিলার নিয়মিত যোগাযোগ চলতে থাকে। সেখানে থেকেই বন্ধুত্ব, তারপর প্রেম। অবশেষে প্রেম রূপ নিলো পরিনয়ে।

নিউজওয়ান২৪.কম/এমজেড