ঢাকা, ০৩ আগস্ট, ২০২০
সর্বশেষ:
সেহরি ও ইফতারের সময় সূচি : ঢাকায় প্রথম রোজার সেহরির শেষ সময় রাত ৪টা ৫ মিনিটে আর ইফতার হবে সন্ধ্যা ৬টা ২৮ মিনিটে। আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুম (০১৭০০৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন নম্বরে (০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫, ০১৯৪৪৩৩৩২২২, ০১৫৫০০৬৪৯০১–০৫) যোগাযোগ করা যাবে। এ ছাড়া করোনাসংক্রান্ত তথ্য জানতে বা সহযোগিতা পেতে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ এবং ৩৩৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। অনলাইনে করোনা নিয়ে যোগাযোগ করতে আইইডিসিআরের ই-মেইল [email protected] এবং ফেসবুক পেজে (Iedcr,COVID19 Control Room) যোগাযোগ করা যাবে। জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

রাশিয়ার মহাকাশ স্টেশনে ছিদ্র : মস্কোর চোখে নাশকতা!

তথ্য প্রযুক্তি ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৩:২০, ২৪ ডিসেম্বর ২০১৮  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

রাশিয়ার আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে একটি সূক্ষ্ম ছিদ্র দেখা গেছে! যদিও তা গত আগস্ট মাসে হয়েছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। মূলত স্টেশনটির ভেতরকার চাপ কমে গেলে বিষয়টি মহাকাশচারীদের নজরে আসে। সম্প্রতি তা জরুরি তৎপরতায় সারিয়েও তোলা হয়। 

তবে সেখানে কীভাবে হলো এমন ছিদ্র? তার ধোঁয়াশা কিন্তু এখনো কাটেনি। কারণ এখন পর্যন্ত সেই মহাকাশ স্টেশনটিতে হওয়া ছিদ্রের কোনো তথ্যই জানা যায়নি। যদিও রাশিয়ার পক্ষ থেকে একে নাশকতা বলেই দাবি করা হচ্ছে। 

তাছাড়া এর পিছনে কোনো অন্তর্ঘাত রয়েছে বলে সন্দেহ দেশটির বিজ্ঞানীদের। সম্প্রতি কর্মকর্তাদের বরাতে এমনি এক চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ করেছে ব্রিটেন ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান।

মস্কোর দাবি, কেউ ইচ্ছাকৃত ছুরি দিয়ে মহাকাশ স্টেশনে ছিদ্র করে দেয়। রুশ মহাকাশ সংস্থার (রসকসমস) প্রধান দিমিত্রি রোজোজিন বলছেন, ‘অরবিট স্টেশনে রাশিয়ার মহাকাশ যানে ‘কাঁপা কাঁপা হাতে’ ড্রিলের মাধ্যমে ছিদ্রটি করা হয়।’

রসকসমসের এ প্রধান আরও বলেন, ‘অভিযুক্তদের শনাক্ত করতে ইতোমধ্যে একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে। সয়ূজ মহাকাশ যান প্রস্ততকারক সংস্থা রাশিয়ার এনার্জিয়া স্পেসের কাছে এমন ঘটনা আমাদের সম্মানের প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে সয়ূজ যানটিকে অবতরণ করা হয়। বিজ্ঞানীদের ধারণা, যানটির ছিদ্রটি ছিল মাত্র দুই মিলিমিটার।

প্রথমে ছোট কোনো উল্কাপিণ্ডের আঘাতে সেই ছিদ্রটি হয়েছিল বলে ধারণা করা হয়। তবে তদন্ত শুরুর পর বোঝা যাচ্ছে ভেতরকার কেউ এ ছিদ্রটি করেছে। যেটি মহাকাশ কিংবা পৃথিবী থেকেও হতে পারে।

মোবাইল-পিসি-টেক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত