ঢাকা, ১৪ অক্টোবর, ২০১৯
সর্বশেষ:
আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন ডিসেম্বরে হেল্পলাইন ১৬২৬৩ এ কল করলেই ডাক্তারের পরামর্শ ডেঙ্গি নিয়ন্ত্রণে একটি সমন্বিত পদক্ষেপ খুবই জরুরি

যেহেতু ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া গেছে সেহেতু এটি আত্মহত্যা!

নারায়ণগঞ্জ সংবাদদাতা

প্রকাশিত: ১১:৩৯, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

আকাশের স্বজনদের আহাজারি

আকাশের স্বজনদের আহাজারি

নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জের আটি হাউজিং এলাকার একটি মাদরাসার শৌচাগার থেকে আবু তালেব আকাশ (১২) নামে এক শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে সুলতানিয়া তাউফিযুল কোরআন নামক ওই মাদরাসার টয়লেট থেকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

মাদরাসার প্রধান শিক্ষক নোমান আহমেদ ঘোষণা করেছেন, যেহেতু ঝুলন্ত অবস্থায় তার মরদেহ পাওয়া গেছে সেহেতু এটি আত্মহত্যা। তবে আবু তালেব আকাশের নানী মোসলেমা বেগম বলেন, আমার নাতিকে মেরে টয়লেটে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। আমি এর বিচার চাই। 

আকাশের লাশের পাশে স্বজনদের আহাজারি   ছবি: নিউজওয়ান২৪.কম

প্রধান শিক্ষক নোমান জানান, বিকেলে মাদরাসার টয়লেটের ভেন্টিলেটরের সঙ্গে গলায় গামছা পেঁচানো অবস্থায় আকাশকে দেখা যায়। পরে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সহযোগিতায় উদ্ধার করে শহরের খানপুরে  ৩০০ শয্যা হাসপাতালে নেয়া হলে ডাক্তার আকাশকে মৃত ঘোষণা করেন।

 ‘আকাশ আত্মহত্যা করেছে’ ঘোষণাদাতা শিক্ষক নোমান (টেলিফোনে কথা বলছেন)                       ছবি: নিউজওয়ান২৪.কম

এদিকে, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (সার্বিক) কামরুল ফারুক বলেন, আমরা তদন্ত করছি। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পর জানা যাবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা। ৩০০ শয্যা হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার অমিত রায় বলেন, ছেলেটিকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর কারণ বলা যাবে।

 

তবে প্রধান শিক্ষক নোমানের আগ বাড়িয়ে ‘আত্মহত্যা’ ঘোষণার বিষয়টি এরই মধ্যে স্থানীয়দের মাঝে সন্দেহের উদ্রেক করছে বলে জানা গেছে।

নাম-পরিচয় প্রকাশ না করার শর্তে মাদ্রাসার একটি সূত্র দাবি করেছে, সম্ভবত আকাশকে হত্যা করা হয়েছে। প্রধান শিক্ষক নোমান পছন্দ করতেন আকাশকে। সেই তিনি’ই পুলিশ-ডাক্তারের সিদ্ধান্তের আগে-ভাগেই ঘোষণা দিয়ে দিচ্ছেন ‘আকাশ আত্মহত্যা করেছে!’ কেন? প্রিয় ছাত্রের এমন অস্বাভাবিক মৃত্যুতে তার তো বিষয়টি অন্যভাবে দেখা উচিৎ।     
নিউজওয়ান২৪.কম/এসএম

স্বদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত