ঢাকা, ২৮ মে, ২০২০
সর্বশেষ:
সেহরি ও ইফতারের সময় সূচি : ঢাকায় প্রথম রোজার সেহরির শেষ সময় রাত ৪টা ৫ মিনিটে আর ইফতার হবে সন্ধ্যা ৬টা ২৮ মিনিটে। আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুম (০১৭০০৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন নম্বরে (০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫, ০১৯৪৪৩৩৩২২২, ০১৫৫০০৬৪৯০১–০৫) যোগাযোগ করা যাবে। এ ছাড়া করোনাসংক্রান্ত তথ্য জানতে বা সহযোগিতা পেতে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ এবং ৩৩৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। অনলাইনে করোনা নিয়ে যোগাযোগ করতে আইইডিসিআরের ই-মেইল [email protected] এবং ফেসবুক পেজে (Iedcr,COVID19 Control Room) যোগাযোগ করা যাবে। জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

ভারতের লোকসভায় বিজেপির ঐতিহাসিক কাশ্মীর বিল পাস 

বিশ্ব সংবাদ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:২৩, ৭ আগস্ট ২০১৯  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

ভারতের রাজ্যসভায় বিজেপি আগেরদিনই উত্থাপন করেছিল জম্মু-কাশ্মীরকে দ্বিখণ্ডিত করার ঐতিহাসিক বিল। মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) লোকসভায় সেই বিল পাস করল দেশটির সাংসদরা। 

জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ নামে আলাদা দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করার এই পদক্ষেপ ইতোমধ্যেই স্থানীয়-বৈশ্বিক উদ্বেগের সৃষ্টি করেছে। হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকার বিগত ৬৯ বছরের ইতিহাসকে পাল্টে ভারতের একমাত্র মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসনসহ বিশেষ অধিকার কেড়ে নেয়ার বিল জনসম্মুক্ষে আনে সোমবার। 

১৯৪৮ সাল থেকে জম্মু-কাশ্মীর ভারতের সঙ্গে এক বিশেষ চুক্তির মাধ্যমে অন্তর্ভুক্ত থাকে, তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী নেহেরু কাশ্মীরের রাজা হরি সিং এর সঙ্গে সেই চুক্তি স্বাক্ষর করেছিলেন। যেখানে কাশ্মীরিদের জন্য কিছু বিশেষ সুবিধা রাখা হয়েছিল। কাশ্মীর ভারতের অন্যান্য রাজ্যের থেকে আলাদা স্বায়ত্তশাসন ভোগ করত, মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ রাজ্যটির ছিল নিজস্ব অনেক অধিকার। যা বিজেপি কেড়ে নেয়, সঙ্গে জম্মু-কাশ্মীর থেকে লাদাখকে আলাদা করে।

জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ হবে দিল্লীর নিয়ন্ত্রিত দুটি অঞ্চল, লাদাখের কোনো বিধানসভা থাকবে না, অন্যদিকে জম্মু-কাশ্মীর থাকবে কেন্দ্রশাসিত বিধানসভাযুক্ত একটি অঞ্চল। ভারতের এমন ভয়াবহ পদক্ষেপ বিশ্বের উত্তপ্ত অঞ্চলটির পরিস্থিকে আরো জটিল করে তুলবে। 

কাশ্মীরের আরেক অংশীদার পাকিস্তান ইতোমধ্যেই ভারতের একপাক্ষিক এই পদক্ষেপের নিন্দা জানিয়ে যেকোনো ব্যবস্থা নেয়ার হুমকি জানিয়েছে। অন্যদিকে লাদাখকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করার একপাক্ষিক পদক্ষেপ আঞ্চলিক স্থিতাবস্থা নষ্ট করবে বলে ভারতকে সতর্ক করেছে কাশ্মীরের ক্ষুদ্রতম অংশের মালিক চীন। 

উগ্র হিন্দুত্ববাদী বিজেপির এই উন্মত্ত সিদ্ধান্ত দক্ষিণ এশিয়াসহ বৈশ্বিক নিরাপত্তাকে যে ঝুঁকির দিকে ঠেলে দিচ্ছে তা এখন দিবালোকের মতো স্পষ্ট। 

নিউজওযান২৪.কম/এমজেড

আরও পড়ুন
বিশ্ব সংবাদ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত