ঢাকা, ২৯ নভেম্বর, ২০২১
সর্বশেষ:

পানিবন্দি ২০ হাজার মানুষের মানবেতর জীবন যাপন

সিরাজগঞ্জ সংবাদদাতা

প্রকাশিত: ০০:৫৯, ১ সেপ্টেম্বর ২০২১  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

যমুনা নদীর পানি গত ২৪ ঘণ্টায় ৫ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে ৪০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নের অধিকাংশ গ্রাম বন্যাকবলিত হয়ে পড়েছে। এতে উপজেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি আরো অবনতি হয়েছে।

বন্যাকবলিত উপজেলার প্রায় ২০ হাজার মানুষ নিচু জমির বাড়িঘরে পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। উপজেলা নদীর তীরবর্তী জালালপুর ইউনিয়নের পাকুরতলা, গুচ্ছগ্রাম ও জালালপুর গ্রামে যমুনা নদীতে ব্যাপক ভাঙনে ২৫ বাড়ি বিলীন হয়ে গেছে। 

ভাঙনকবলিত বাড়িঘরে যাওয়ার জায়গা না থাকায় অনেকে খোলা আকাশের নিচে ছাউনি তৈরি করে বসবাস করছেন। এছাড়া শাহজাদপুর উপজেলার খুকনি ইউনিয়নের ব্রাহ্মণগ্রাম ও আরকান্দি গ্রামের পানিবন্দি মানুষ এখনও চৌকি ও মাচায় বসবাস করছে। এসব মানুষ এখনও কোনো ত্রাণসামগ্রী পায়নি। ফলে এক বেলা কিংবা আধা বেলা খেয়ে না খেয়ে দিন কাটাচ্ছে তারা 

এ বিষয়ে সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম বলেন, ভাঙন পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

শাহজাদপুর উপজেলার পিআইও আবুল কালাম আজাদ বলেন, বন্যাকবলিত ইউনিয়নগুলোর বানভাসি মানুষের মাঝে ইতোমধ্যে নগদ ৮০ হাজার টাকা ও ১০০ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়েছে। এ ছাড়া নদী ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্তদের খোঁজ খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

স্বদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত