ঢাকা, ১৯ নভেম্বর, ২০১৯
সর্বশেষ:
জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯ আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন ডিসেম্বরে হেল্পলাইন ১৬২৬৩ এ কল করলেই ডাক্তারের পরামর্শ

নিহত ক্যাডেট-নাবিকের পরিবার ক্ষতিপূরণ পেল ৮৩ লাখ টাকা

প্রকাশিত: ২০:৩৩, ৫ মে ২০১৯  

আর্জেন্টিনায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মেরিন একাডেমির ৫১তম ব্যাচের ক্যাডেট-নাবিক আলী আসগরের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে ৮৩ লাখ ৩৮ হাজার ১২৩ টাকা দেওয়া হয়েছে। সচিবালয়ে রবিবার আসগরের বাবা আলী আকবর খান এবং মা রাজিয়া আকবরের হাতে ক্ষতিপূরণের অর্থের চেক তুলে দেন নৌ প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে জানানো হয়, আসগর চট্টগ্রামের সরকারি শিপিং অফিসের মাধ্যমে স্থানীয় ম্যানিং এজেন্ট (নাবিক নিয়োগের মধ্যস্ততাকারী প্রতিষ্ঠান) মেসার্স মেরিন হাইভ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনাধীন ‘এমভি ডালি’ জাহাজে যোগ দায়িত্বরত ছিলেন।

গত বছরের ৮ জুলাই জাহাজ পরিবর্তন করে ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরো বন্দরে ‘এমভি এশিয়া পার্ল-ভি’ জাহাজে যোগ দেন তিনি; যা চীনের এশিয়া মেরিন প্যাসিফিক কোম্পানির অন্তর্ভুক্ত।

২০১৮ সালের ৩ সেপ্টেম্বর এশিয়া পার্ল-ভি আর্জেন্টিনার পুরতো স্যান মার্টিন বন্দরে অবস্থান করছিল। এ সময় ক্যাডেট-নাবিক আসগর জাহাজের মাস্টারের অনুমতি নিয়ে শোর লিভে (জাহাজ থেকে নেমে তীরে নেমে নির্দিষ্ট সময় অবস্থানের অনুমোদন/ছুটি) যাওয়ার সময় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন।

একই বছরের ১২ অক্টোবর আসগরের লাশ বাংলাদেশে এনে তার বরগুনার গ্রামের বাড়িতে দাফন করা হয়। প্রাথমিকভাবে মেরিন হাইভ লিমিটেডের বিভিন্ন ক্যাডেটের সহায়তায় সাড়ে ৬ লাখ টাকা সংগ্রহ করে আসগরের মায়ের নামে ব্যাংকে জমা করা হয়।

পরে মেরিন হাইভের উদ্যোগে বীমা কোম্পানি প্রটেকশন অ্যান্ড ইনডেমনিটি ক্লাবের (পি অ্যান্ড আই ক্লাব) সহযোগিতায় এবং নৌপরিবহন অধিদপ্তরের নির্দেশনায় পারিবারিক ক্ষতিপূরণ হিসাবে এক লাখ ডলারের সমপরিমাণ ৮৩ লাখ ৩৮ হাজার ১২৩ টাকা গ্রহণ করা হয়।

চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে নৌ প্রতিমন্ত্রী বলেন, অর্থ দিয়ে এই শোক ভুলে যাওয়ার নয়। বাবার কাঁধে সন্তানের লাশ খুব ভারী বিষয়। সন্তানকে ঘিরে যে সম্ভাবনা ছিল তা শুরুতেই নিভে গেছে। তারা শুধু সন্তানকেই হারাননি, আমরাও একজন দক্ষ নাবিক হারিয়েছি। একটা নাবিক তৈরি করা এত সহজ ব্যাপার নয়।
নিউজওয়ান২৪.কম/আরকে

আরও পড়ুন
শিক্ষাঙ্গন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত