ঢাকা, ২০ নভেম্বর, ২০১৯
সর্বশেষ:
জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯ আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন ডিসেম্বরে হেল্পলাইন ১৬২৬৩ এ কল করলেই ডাক্তারের পরামর্শ

তিল রহস্য!

সাতরং ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৩:২৩, ৪ মে ২০১৪   আপডেট: ১১:১৪, ১৮ মে ২০১৬

নাকে তিল মানে পরিশ্রমী আর নির্ভরযোগ্য বন্ধু

নাকে তিল মানে পরিশ্রমী আর নির্ভরযোগ্য বন্ধু

সাধারণত শরীরের কোনও বিশেষ অংশে একটি তিলের অবস্থান সেই অঙ্গের সৌন্দর্যকে অনেকাংশে বাড়িয়ে তোলে। ভাবুন একদা বিশ্ব মাতানো সঙ্গীত শিল্পী ম্যাডোনা কিংবা সুপার মডেল সিন্ডি ক্রফোর্ডের ঠোঁটের ওপরের তিলের কথা! ওই একটিমাত্র তিল তাদের সৌন্দর্যকে করেছে বহুগুণ আকর্ষণীয় আর কাম্য।

তবে তিলকে শুধুমাত্র শারীরিক সৌন্দর্যের জ্যোতি বাড়ানোর কারিগর হিসেবেই ভাবা হয় না। চিন্তাশীল মানুষদের অনেকেই ভাব-লক্ষণ আর অন্যান্য আনুষঙ্গিক বিচারে সিদ্ধান্তে চেয়েছেন শরীরে তিলের অবস্থানের ভাল-মন্দ নিয়ে। তেমনি কিছু ধারণা এখানে তুলে ধরা হলো।

অবশ্য অনেক চিন্তাশীল মানুষ এটাও মনে করেন যে—এসব ধারণা আসলে কুসংস্কারকেই শক্তিশালী করে এবং এগুলোর সত্যিকারের কোনও ভিত্তি নেই।

তবে, তিল নিয়ে যেহেতু অনেক কথা, তাই আসুন পক্ষে বিপক্ষের চিন্তা বাদ দিয়ে আমরা দেখে নেই তিল নিয়ে প্রচলিত ধারণাগুলো।

গালে তিল: যার গালে তিল থাকে তিনি সাধারণত সহজাত গম্ভীর স্বভাবের হন। এছাড়া পড়ালেখা বা মেধানির্ভর কাজে বেশ পারদর্শী হয়ে থাকেন এরা। ছোটখাটো সাফল্য-অর্জনে সাধারণত তৃপ্তি হন না এর। যে চ্যালেঞ্জ নেন তা বাস্তবে পরিণত করেই দম ফেলেন গালে তিলওয়ালারা।

থুতনিতে তিল: যার থুতনিতে তিল থাকে সে বেশ ভাগ্যবান। জীবন সাফল্যের পথে নাম, যশ, সম্পদ অর্জণে তাকে খুব একটা কাঠ-খড় পোড়াতে হয়না, পরিশ্রমও তেমন লাগে না।

কানে তিল: যাদের কানে তিল থাকে তারা নিঃসন্দেহে বেশ ভাগ্যবান। ধন-সম্পদ, ভ্রমণ-আনন্দ, বিলাস— সুখী জীবনের কাঙ্ক্ষিত এসব উপাদান তাদের ভাগ্যে সাধারণত বরাদ্দই থাকে।

চোখের পাশে: চোখের কিনারায় বা পাশে তিলের অবস্থান বিশ্বস্ততার পরিচায়ক। যাদের এরকম স্থানে তিল আছে, সেসব লোককে আপনি চোখ বন্ধ করে বিশ্বাস করতে পারেন।এ ধরনের লোকজন কখনও কারও সঙ্গে ধোঁকাবাজী প্রায় করে’ই না বলা যায়।

ভ্রূতে তিল: যদি ডান ভ্রূতে তিল থাকে, বুঝতে হবে এ ধরনের নারী-পুরুষের বিবাহিত জীবন খুব সুখের হয়। এরা প্রায় সব ক্ষেত্রেই সফল হন। তবে যাদের বাম ভ্রুতে তিল— সৌভাগ্যের ক্ষেত্রে অবস্থান ঠিক উল্টো দিকে। ধন-সম্পদ খুব একটা ধরা দেয় না। প্রচুর পরিশ্রম আর কষ্টের পরও ভাগ্য তাদের সহায় খুব একটা হয় না।

নাকে তিল: যাদের নাকে তিল তারা খুব নির্ভরযোগ্য আর সেরা বন্ধু হন। খুব মেহনতী স্বভাবের এই মানুষগুলোর ওপর চোখ বন্ধ করে ভরসা রাখা যায়।

কপালে তিল: যাদের কপালের ডান দিকে থাকে তারা বেশ ধনী আর সুখী হন। যে কোনও কিছু কাজ সমাধা করার অদ্ভূত ক্ষমতা থাকে তাদের। এমনকি চিন্তা-ভাবনার ক্ষেত্রেও তারা অসাধারণ মেধার স্বাক্ষর রাখেন। আর যাদের তিল কপালের বাঁ দিকে— তারা অর্থের মূল্য কখনো বোঝেন না। এক হাতে কামাই আর অন্য হাতে তা খরচা, অনেকটা এভাবেই চলে তাদের জীবন। তবে যাদের কপালের মাঝখানে তিল থাকে তারা জীবনে বেশ সাফল্য অর্জণ করেন।

গলায় তিল: যাদের গলায় বা গর্দানে তিল থাকে তাদের স্বভাব-চরিত্র অনেকটাই চরমভাবাপন্ন থাকে। এই তাদের সুখী দেখলেন তো পরমুহূর্তেই দেখবেন দুঃখে ভেঙ্গে পড়া অবস্থায়। তবে মজার ব্যাপার হলো, এ ধরনের ব্যক্তির ক্যারিয়ার প্রথম দিকে ঢিলা-ঢালা থাকলেও পরবর্তীতে বেশ স্থির সমৃদ্ধ হয়ে থাকে।

হাতে তিল: যার হাতে তিল থাকে তার উত্থান কেউ ঠেকাতে পারে না।

আঙুলে তিল: অনেকের মতে এমন লোককে ভুলেও বিশ্বাস না করা ভালো। এ ধরনের মানুষ ধোঁকাবাজ স্বভাবের হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫৮ ঘণ্টা, ০৩ মে, ২০১৪

আরজে/

অর্থ-কড়ি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত