ঢাকা, ১৩ জুন, ২০২৪
সর্বশেষ:

চতুর্থ প্রজন্মের চ্যাটবট চ্যাট-জিপিটির ভালো-মন্দ 

নিউজওয়ান২৪ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৫:৪৯, ১৬ জানুয়ারি ২০২৩  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো


চ্যাট-জিপিটি (Chat-GPT) এর পুরো মানে দাঁড়ায় চ্যাট জেনারেটিভ প্রি-ট্রেইন্ড ট্রান্সফরমার (Chat Generative Pre-Trained Transformer)। এটি একটি ওপেন আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স চ্যাট বট। বাজারে অনেক চ্যাট বট থেকে এই বট একেবারেই আলাদা। এতে রয়েছে উন্নত মানের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা।

চ্যাট-জিপিটি নিয়ে কেন এত কথা হচ্ছে? এই প্রশ্নের উত্তর উপরের প্যারার শেষ লাইনে কিছুটা রয়েছে। এই বট নিয়ে এতো এতো যে আলোচনা হচ্ছে তার অন্যতম কারণ, এটা মানুষের মতো প্রতিক্রিয়া দেখাতে সক্ষম। যেটার পারফরম্যান্স দেখে মনে হতে পারে আপনি কোনো যান্ত্রিক অনুষঙ্গ নয়, জলজ্যান্ত একজন মানুষের সঙ্গেই কথা বলছেন। 

এর দ্বারা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সের অনেক কিছু শিখতে পারবেন আপনি। অনেক অঙ্কের সমাধান করতে পারবেন। জ্ঞান ও বিজ্ঞান বিষয়ক অনেক তথ্য আবিষ্কার করতে পারবেন। আপনি যখন গুগলে কিছু সার্চ করেন তখন গুগল আপনাকে সেই সম্পর্কিত অনেক ওয়েবসাইট এর ঠিকানা দেখায় কিন্তু চ্যাট-জিপিটি সম্পূর্ণ ভিন্ন উপায়ে কাজ করে। এখানে আপনি যখন কোনো প্রশ্ন সার্চ করেন চ্যাট-জিপিটি আপনাকে সেই প্রশ্নের সরাসরি উত্তর দেখায়। চ্যাট-জিপিটি এর মাধ্যমে আপনি প্রবন্ধ, ইউটিউব ভিডিও স্ক্রিপ্ট, কভার লেটার, জীবনী, ছুটির আবেদন ইত্যাদি খুব সহজেই লিখতে পারবেন।

চ্যাট-জিপিটি কিভাবে ব্যবহার করবেন?

আমরা আপনাকে জানাতে চাই যে এটি ব্যবহার করার জন্য আপনাকে এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে এবং আপনাকে এখানে অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। আপনি এখানে অ্যাকাউন্ট তৈরি করার পরেই চ্যাট-জিপিটি ব্যবহার করতে পারবেন। বর্তমানে এটি সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ব্যবহার করা যাবে এবং অ্যাকাউন্টটি এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে একেবারে বিনামূল্যে তৈরি করা যাবে। অ্যাকাউন্ট খোলার পদ্ধতিটি নিচে ধাপে ধাপে বলা হয়েছে।

এ জন্য প্রথমে আপনাকে আপনার মোবাইল অথবা কম্পিউটারে ইন্টারনেট চালু করতে হবে এবং তারপর যেকোনো ব্রাউজার খুলতে হবে। ব্রাউজার খোলার পরে Chat.openai.com ওয়েবসাইট খুলতে হবে।

ওয়েবসাইটের হোম পেজ খোলার পর আপনি লগইন এবং সাইন আপের মতো দুটি অপশন দেখতে পাবেন। যার মধ্যে আপনাকে সাইন আপ অপশনে ক্লিক করতে হবে কারণ এখানে আপনি প্রথমবারের মতো আপনার অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে যাচ্ছেন।

আপনি এখানে মাইক্রোসফ্ট অ্যাকাউন্ট বা জিমেইল আইডি ব্যবহার করে অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে পারেন। Gmail আইডি দিয়ে এটিতে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে আপনাকে Continue with Google অপশনে ক্লিক করতে হবে।

এখন আপনার ব্রাউজারে যে জিমেইল আইডিগুলি লগইন আছে সেইগুলি দেখতে পাবেন এবং যে Gmail আইডি দিয়ে আপনি অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে চান তার ওপর ক্লিক করুন। এরপর আপনি যে প্রথম বক্সটি দেখছেন সেখানে আপনার নাম এবং তারপরের বক্সে আপনার ফোন নম্বর লিখতে হবে, তারপর Continue বোতামে ক্লিক করতে হবে।

এখন আপনি চ্যাট-জিপিটিতে অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য যে ফোন নম্বরটি দিয়েছেন তাতে একটি ওটিপি পাঠানো হবে। এবার সেই কোডটি স্ক্রিনে প্রদর্শিত বক্সে লিখে ভেরিফাই বাটনে ক্লিক করুন।

ফোন নম্বর যাচাই করার পরে চ্যাট-জিপিটিতে আপনার অ্যাকাউন্ট তৈরি হয়ে যাবে এবং এরপরে আপনি এটি ব্যবহার করতে পারবেন।

চ্যাট-জিপিটির সুবিধা

যেহেতু চ্যাট-জিপিটি সম্প্রতি চালু হয়েছে, সবাই এর সুবিধার বিষয়ে আগ্রহী। আসুন তাহলে, এবার এর সুবিধা সম্পর্কিত তথ্যগুলো জেনে নেই।

চ্যাট-জিপিটি বটের প্রধান সুবিধা হল যখন কেউ এখানে কিছু অনুসন্ধান করে, তখন সে তার প্রশ্নের বিস্তারিত উত্তর পায়, অর্থাৎ সে তার অনুসন্ধান সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য পায়। আপনি যখন গুগলে কিছু অনুসন্ধান করেন, তখন আপনার অনুসন্ধানের ওপর ভিত্তি করে অনেক অনেক ওয়েবসাইট দেখানো হয়, যাতে অনেক সময়েই আপনি বিভ্রান্ত হতে বাধ্য। কিন্তু চ্যাট-জিপিটির ক্ষেত্রে এটি হয় না। এখানে সরাসরি সম্পর্কিত ফলাফল নির্দেশিত হয়।

এর আরেকটি উল্লেখযোগ্য সুবিধা হল যে আপনি যখন কিছু অনুসন্ধান করেন তখন ফলাফলগুলি দেখেন, কিন্তু যদি আপনি ফলাফলে অসন্তুষ্ট হন, আপনি সেই তথ্যটি চ্যাট-জিপিটি-তে জমাও করতে পারবেন। যার ফলে ফলাফলগুলি সর্বদা আপডেটেড থাকে৷ বর্তমানে, এই পরিষেবাটি ব্যবহার করার জন্য কোনও অর্থ খরচের প্রয়োজন নেই। ব্যবহারকারীরা এটি বিনামূল্যেই ব্যবহার করতে পারছেন।

চ্যাট-জিপিটির সীমাবদ্ধতা

উপরে আমরা চ্যাট-জিপিটির সুবিধাগুলি জেনেছি। তবে অন্য সবকিছুর মতো এরও কিছু অসুবিধা বা সীমাবদ্ধতা থাকবে বইকি। চ্যাট-জিপিটির কী কী অসুবিধা আছে এখন সেগুলিও জানবো।

বর্তমানে শুধুমাত্র ইংরেজি ভাষায় চ্যাট-জিপিটি কাজ করছে সুতরাং যারা শুধু ইংরেজি ভাষায় কিছু জানতে চাইছে তাদের জন্য এটি কার্যকর হবে। তবে ভবিষ্যতে অন্যান্য ভাষাও অন্তর্ভুক্ত করা হবে। এমন অনেক প্রশ্ন আছে যার উত্তর আপনি এখানে পাবেন না। এর প্রশিক্ষণ শেষ হয়েছে ২০২২ সালের শুরুতে তাই আপনি ২০২২ সালের মার্চ মাসের পরের ঘটনা সম্পর্কে খুব কমই কোনো তথ্য পাবেন। যতদিন এটি প্রশিক্ষণের সময়ে থাকবে ততদিন আপনি বিনামূল্যে ব্যবহার করতে সক্ষম হবেন।

প্রশিক্ষণ বা গবেষণার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর থেকে এটি ব্যবহার করার জন্য অর্থ প্রদান করতে হবে। তবে এই টাকা কত হবে সে বিষয়ে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

যেহেতু চ্যাট-জিপিটি একটি ভাষা মডেল, এটি অনিবার্যভাবে ভুল উত্তর প্রদান করবে। কখনও কখনও, আসলেই এটি মারাত্মক কিছু ভুল করে বসে। কম্পিউটার বিজ্ঞানি অ্যান্ডিউ এনজি এতে ‘কখনও কখনও হাস্যকরভাবে ভুল’ খুঁজে পান। কখনও কখনও চ্যাট-জিপিটি ধারণা দেয় যে এটি ভুল হওয়ার পরেও বটটি এর উত্তরগুলিতে খুব আত্মবিশ্বাসী। এই বিষয়টি ক্ষতিকারক হতে পারে ব্যবহারকারীর জন্য— কারণ আপনি সঠিক উত্তরটি না জানলে কখন ভুল হচ্ছে তা বলতে পারবেন না, যেমনটি টুইটারে অ্যান্ড্রু দেখানোর চেষ্টা করেছেন। ডিপ লার্নিং এর জন্য ডিএনএ কম্পিউটিং নাকি সিপিউ কম্পিউটিং দ্রুত গতির? এমন প্রশ্নের উত্তরে চ্যাট-জিপিটি একটি ভুলভাল উত্তর প্রদান করে। নিচে তার একটি স্ক্রিনশট দেওয়া হলো।

লেখক- তানভীর মোহাম্মাদ নোমান

নিউজওয়ান২৪.কম/আরএডব্লিউ

মোবাইল-পিসি-টেক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত