ঢাকা, ১৯ জানুয়ারি, ২০২০
সর্বশেষ:
জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

ঘুমানোর স্থান নিয়ে তর্কে ইটের আঘাতে রিকশাচালক নিহত

নারায়ণগঞ্জসংবাদদাতা

প্রকাশিত: ১৯:৩৯, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৯  

-ফাইল ফটো

-ফাইল ফটো

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানা এলাকায় ঘুমানোর জায়গা নিয়ে তর্কের জের ধরে এক রিকশাচালকের ইটের আঘাদে নিহদ হয়েছে আরেক রিকশাচালককে। আজ (মঙ্গলবার) ভোরে ফতুল্লার কাশিপুর খিলমার্কেট এলাকায় সেলিম মিয়ার ভাড়াটিয়া বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম সুরুজ মিয়া (৫৭) ও হত্যাকারী আব্দুল গনি মিয়া (৫৬) দুজনই ময়মনসিংহ জেলার বাসিন্দা। নিহত সুরুজ মিয়া ময়মনসিংহের ত্রিশাল থানার কোনাবাড়ি গ্রামের কেরামত আলীর ছেলে এবং আব্দুল গনি ফুলপুর থানার কাইজাকান্দা গ্রামের ইব্রাহীম মিয়ার ছেলে। ঘাতক গনিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।  

প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্রে ফতুল্লা মডেল থানা ওসি আসলাম হোসেন জানান, একটি ঘরে ৫ জন রিকশাচালক এক সঙ্গে বসবাস করছিল। গতকাল সোমবার দিবাগত রাতে তাদের মধ্যে চারজন ঘরে এসে ঘুমিয়ে পড়ে আগেই। তবে সুরুজ রাতভর রিকশা চালিয়ে ভোরে বাসায় ফেরে। এসময় তার ঘুমানোর স্থানে আব্দুল গনিকে ঘুমিয়ে থাকতে দেখে তাকে ডেকে তোলেন সুরুজ। পরে তর্কে জড়িয়ে পড়েন দুজনে। একপর্যায়ে গনি ইট দিয়ে সুরুজের মাথায় আঘাত করলে মাটিতে লুটে পড়েন তিনি। রুমমেটরা গুরুতর আহত সুরুজকে প্রথমে নারায়ণগঞ্জ শহরের ১০০শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে দ্রুত গনি মিয়াকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এদিকে ওসি জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘাতক গনি মিয়া জানিয়েছে সুরুজ মিয়া তাকে বিড়ির মধ্যে মিশিয়ে কী যেনো খাইয়েছে। এতে তার স্মৃতি শক্তি লোপ পায়। তখন কী হয়েছে বা কী করেছে তা তার মনে নেই।  
নিউজওয়ান২৪.কম/এসএল

আরও পড়ুন
অপরাধ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত