ঢাকা, ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
সর্বশেষ:
বাংলাদেশ-ভারত স্বরাষ্ট্র সচিব পর্যায়ের বৈঠক ফেব্রুয়ারিতেই বাংলাদেশ-ভারত স্বরাষ্ট্র সচিব পর্যায়ের বৈঠক ফেব্রুয়ারিতেই বিজাতীয় ভাষা চাপিয়ে দেওয়ার অপচেষ্টা রুখে দিয়েছিলো ছাত্রসমাজ: প্রধানমন্ত্রী অর্থাভাবে বাংলা জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা হয়নি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

খাশোগি হত্যা: গোয়েন্দা তথ্যে ফেঁসে যাচ্ছেন সৌদি যুবরাজ!

বিশ্ব সংবাদ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২০:৪৩, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

সাংবাদিক জামাল খাশোগি ও সৌদি যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমান

সাংবাদিক জামাল খাশোগি ও সৌদি যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমান


শিগগিরই সৌদি রাজ পরিবারের কঠোর সমালোচক ভিন্ন মতাবলম্বী সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে পূর্ণাঙ্গ গোয়েন্দা তথ্য প্রকাশ করতে যাচ্ছে মার্কিন সরকার। 

নির্ভরযোগ্য সূত্রের বরাত দিয়ে মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্ট শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রশাসন আগামী সপ্তাহ নাগাদ এই প্রতিবেদন প্রকাশ করবে।

ওই প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, মার্কিন গোয়েন্দা সূত্রগুলো নিশ্চিত হয়েছে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমানের নির্দেশেই খাশোগিকে হত্যা করা হয়েছে।

২০১৮ সালের অক্টোবরে ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশের পর নিখোঁজ হন সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগি। তার সঙ্গে ছিলেন তার তুর্কি বাগদত্তা খাদিজা চেঙ্গিস।

বিয়ের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আনতেই ওই বছর ২ অক্টোবর ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশ করেছিলেন খাশোগি। তার নিখোঁজ রহস্য নিয়ে বিশ্বজুড়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া শুরু হলে তাকে হত্যার কথা স্বীকার করে সৌদি সরকার।

ট্রাম্প খাশোগি হত্যাকাণ্ডের দলিল গোপন রাখার নির্দেশ দিলেও বাইডেনের নির্দেশে তা উন্মুক্ত করে দেয়া হচ্ছে। সৌদি কনস্যুলেট কর্মকর্তারা প্রথমে দাবি করেন, জিজ্ঞাসাবাদের সময় কর্মকর্তাদের ভুলে নিহত হন ওই সাংবাদিক। তবে তার মৃতদেহের কোনো সন্ধান দেননি তারা।

হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় গত বছরের অক্টোবরে সৌদি যুবরাজের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রে মামলা দায়ের করেছেন নিহতের বাগদত্তা। এতে অভিযোগ করা হয়েছে, সৌদি যুবরাজই  খাশোগিকে নির্মমভাবে হত্যার নির্দেশ দিয়েছেন।

তবে ওই হত্যাকাণ্ডের পরবর্তী কয়েক সপ্তাহ ধরে বিষয়টি টপ অব দ্যা ওয়ার্ল্ডে পরিণত হলেও তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সৌদি যুবরাজকে বাঁচিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

আরও পড়ুন
বিশ্ব সংবাদ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত