ঢাকা, ১১ জুলাই, ২০২০
সর্বশেষ:
সেহরি ও ইফতারের সময় সূচি : ঢাকায় প্রথম রোজার সেহরির শেষ সময় রাত ৪টা ৫ মিনিটে আর ইফতার হবে সন্ধ্যা ৬টা ২৮ মিনিটে। আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুম (০১৭০০৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন নম্বরে (০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫, ০১৯৪৪৩৩৩২২২, ০১৫৫০০৬৪৯০১–০৫) যোগাযোগ করা যাবে। এ ছাড়া করোনাসংক্রান্ত তথ্য জানতে বা সহযোগিতা পেতে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ এবং ৩৩৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। অনলাইনে করোনা নিয়ে যোগাযোগ করতে আইইডিসিআরের ই-মেইল [email protected] এবং ফেসবুক পেজে (Iedcr,COVID19 Control Room) যোগাযোগ করা যাবে। জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

করোনায় ইতালিতে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৯:৪৩, ১১ মার্চ ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত


প্রাপ্রাণঘাতী নোভেল করোনাভাইরাস তথা কোভিড-১৯ এ ইতালিতে আরো ১৬৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এতে দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৩১ জনে।

দেশটিতে এটিই একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড।

এদিকে ইতালিতে নতুন করে আরো প্রায় এক হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়ালো।

গত ডিসেম্বরে চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়ে করোনাভাইরাস। তবে চীনের পর সবচেয়ে বেশি আঘাত হেনেছে ইতালিতে। চীনে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা কমলেও আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে ইতালিতে।

বিশ্বের ১০৯টি দেশ ও অঞ্চলে এই ভাইরাসের প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানিয়েছে, মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত এ ভাইরাসে ৪ হাজার ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। যেখানে ৩ হাজার ১৩৬ জনই চীনা নাগরিক।

চীনের পর করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি দক্ষিণ কোরিয়ায়। দক্ষিণ কোরিয়ায় এ পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে অন্তত ৫৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া আক্রান্ত হয়েছে ৭ হাজার ৫১৩ জন।

গত মঙ্গলবার (১০ মার্চ) থেকে  জরুরি অবস্থা জারি করার পর থেকে দেশটির প্রায় ৬ কোটির বেশি মানুষকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। দেশটির সেনাপ্রধান জেনারেল সালভেতোরি ফারিনা আক্রান্ত হয়ে নিজেই নিজের বাসায় কোয়ারেন্টাইনে।

এরইমধ্যে দেশটির সঙ্গে অন্যান্য দেশের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। ১২ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত দেশটির ভেনিসে ফ্লাইট স্থগিত করছে এমিরেটস এয়ারলাইন।

করোনার ভয়াবহ আক্রমণে দেশটি অর্থনৈতিকভাবে বেশ ক্ষতির সম্মুখীন। এরইমধ্যে অনেক রেস্টুরেন্টেসহ মার্কেট বন্ধ হয়ে গেছে। এই সব জায়গায় যারা কাজ করতো, সবাই এখন বেকার। এতে করে চরম বিপাকে পড়ছে বন্ধ হওয়ার প্রতিষ্ঠানের কর্মরত দেশি বিদেশি কর্মচারীরা। এ নিয়ে উদ্বেগ ও আতঙ্ক প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাঝেও দেখা দিয়েছে।

তবে এখন পর্যন্ত কোনো প্রবাসী বাংলাদেশি এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি। প্রবাসী বাংলাদেশি কেউ করোনায় আক্রান্ত হলে ১৫০০ এবং ১১২ নম্বরে যোগাযোগ করতে বলেছে দূতাবাস কর্তৃপক্ষ।

ইতালির বিভিন্ন শহরে প্রায় ২ লাখেরও অধিক বাংলাদেশি বসবাস করছে। করোনা ভাইরাসে আতঙ্কিত না হয়ে প্রবাসী বাংলাদেশিদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন দেশটিতে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত আবদুস সোবহান সিকদার।

নিউজওয়ান২৪.কম/এমজেড

আরও পড়ুন
বিশ্ব সংবাদ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত