ঢাকা, ১১ আগস্ট, ২০২০
সর্বশেষ:
সেহরি ও ইফতারের সময় সূচি : ঢাকায় প্রথম রোজার সেহরির শেষ সময় রাত ৪টা ৫ মিনিটে আর ইফতার হবে সন্ধ্যা ৬টা ২৮ মিনিটে। আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুম (০১৭০০৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন নম্বরে (০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫, ০১৯৪৪৩৩৩২২২, ০১৫৫০০৬৪৯০১–০৫) যোগাযোগ করা যাবে। এ ছাড়া করোনাসংক্রান্ত তথ্য জানতে বা সহযোগিতা পেতে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ এবং ৩৩৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। অনলাইনে করোনা নিয়ে যোগাযোগ করতে আইইডিসিআরের ই-মেইল [email protected] এবং ফেসবুক পেজে (Iedcr,COVID19 Control Room) যোগাযোগ করা যাবে। জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

করোনামুক্ত করতে নিজনান্দুয়ালী গ্রামে ৩০ যুবকের উদ্যোগ 

মাগুরা প্রতিনিধি 

প্রকাশিত: ২২:০৬, ৩০ মার্চ ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত


প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রতিরোধে মাগুরা সদর উপজেলার নিজনান্দুয়ালী গ্রামের বিভিন্নস্থানে জীবাণুনাশক স্প্রে করেছেন এলাকার যুবকরা।

সোমবার (৩০ মার্চ) গ্রামের বিভিন্ন রাস্তা ও গলিতে জীবাণুনাশক স্প্রে করেন তারা। পাশাপাশি এলাকার মানুষকে সর্তক করার কাজও করছেন। তাদের এসব উদ্যোগে প্রশংসায় ভাসাচ্ছেন এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা।

সম্প্রতি বিশ্বব্যাপী প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস থেকে নিজের গ্রামের মানুষের কথা চিন্তা করে ওই এলাকার ইয়াকুব আল ইমরান ও ফখরুল ইসলাম পিকুলের নেতৃত্বে গ্রামের ৩০ যুবক মিলে একটি টিম গঠন করেন।

ছবি : সংগৃহীত

এরপর তারা দলে দলে বিভক্ত হয়ে এলাকার বিভিন্নস্থানে জীবাণুনাশক স্প্রে করেন। পাশাপাশি এলাকার মানুষদের করোনাভাইরাস থেকে নিজেকে মুক্ত রাখার বিষয়ে পরামর্শ দেন তারা। একই সঙ্গে এলাকার অসহায় মানুষদের খাবার দিতে একটি ফান্ড গঠন করা হয়েছে। এ ফান্ড সংগ্রহ করে তারা ধারাবাহিকভাবে দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ করবেন।

এ বিষয়ে ইয়াকুব আল ইমরান জানান, গ্রামে প্রায় ১২০০ পরিবার অর্থাৎ ছয় থেকে সাত হাজার দিনমজুর বসবাস করেন। করোনা মোকাবিলায় সরকারঘোষিত বিভিন্ন কর্মসূচির অংশ হিসেবে সারাদেশের মতো ওই এলাকায়ও অফিস-আদালত, কলকারখানা বন্ধ রয়েছে। এতে এখানকার খেটে খাওয়া মানুষগুলো খাদ্য সংকটে পড়েছেন। আমরা তাদের তালিকা করেছি। তাদের কাছে খাবার পৌঁছে দিতে ফান্ড গঠন করেছি; যা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। তাদের জন্য অন্তত ১০ লাখ টাকার অনুদান প্রয়োজন। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

কমিটির অন্য সদস্যরা জানান, একটু সচেতন থাকলে যেহেতু এ ভাইরাস থেকে নিজেকে রক্ষা করা সম্ভব। সেই চিন্তা থেকেই আমরা গ্রামের যুবকরা উদ্যোগ নিয়েছি এলাকায় জীবাণুনাশক স্প্রে করে সাধারণ মানুষকে করোনাভাইরাস সম্পর্কে সচেতন করবো।

তারা আরো জানান, এ উদ্যোগ সফল হয়েছে কিছু মানুষের সহযোগিতায়। অনেকেই আমাদের স্প্রে কেনাসহ সার্বিক বিষয়ে আর্থিকভাবে সহযোগিতা করেছেন।

স্বেচ্ছাসেবক কমিটিকে সহযোগিতা করেছেন, শাহরিয়ার ইসলাম শাহারুল, মোস্তাফিজ রহমান, মনিরুল ইসলাম, রাব্বি মিয়া, আশিকুল ইসলাম, শামিম হাসান, বিল্লু, ফয়সাল আহমেদ, স্বাগত দত্ত গিরু, সজীবুর রহমান সবুজ, রোকনুজ্জামান শুভ, সিফাত রহমান, মাহমুদুল হাসান, শেখ মাহমুদ পিয়াস, আলিনুর শেখ, শেখ সুমন, তৌফিকুর রহমান, শেখ আশিকুল, ওহিদুল ইসলাম, তৌহিদুল ইসলাম, ইমন খান, আবির হাসান, রাতুল, রাকিবসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা।

নিউজওয়ান২৪.কম/এমজেড

আরও পড়ুন
স্বদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত