ঢাকা, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
সর্বশেষ:

‘উত্তাল পদ্মায় ভেবেছিলাম আর বাঁচব না’

রাজবাড়ী সংবাদদাতা

প্রকাশিত: ০০:৫৫, ১ সেপ্টেম্বর ২০২১  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

রাজবাড়ীর সদর উপজেলার অন্তরমোড় এলাকা থেকে পদ্মা নদীতে ট্রলার ডুবে ভেসে ৭ কিলোমিটার দূরে যাওয়া ৩ কৃষককে জীবিত উদ্ধার করেছে গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) দুপুর ৩টার দিকে পদ্মার ৭ কিলোমিটার ভাটিতে উজানচর ইউনিয়নের চর কর্ণেশন এলাকা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধার হওয়া কৃষকরা হলেন- সদর উপজেলার বরাট ইউনিয়নের অন্তরমোড় এলাকার মহির উদ্দিন মন্ডল (৫১), একই ইউনিয়নের কাসরন্দ গ্রামের আব্দুল লতিফ খাঁ (৭৫) ও রমজান শেখ (৬৫)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গবাদিপশুর ঘাস সংগ্রহের জন্য তারা একটি ছোট নৌকা নিয়ে গোয়ালন্দ উপজেলার দেবগ্রাম ইউনিয়নের চর বেথুরী এলাকায় গিয়েছিলেন। সেখান থেকে ঘাসবোঝাই করে ফেরার পথে পদ্মায় তীব্র স্রোত ও ঢেউয়ের আঘাতে ট্রলারটি ডুবে যায়। তবে তারা ট্রালারে থাকা ঘাসের বোঝা আঁকড়ে ধরে নদীতে ভেসে ছিলেন।

উদ্ধার হওয়া কৃষকরা বলেন, গাবদিপশুর ঘাস কাটতে পদ্মার ওই পাড়ে যাই। ঘাস কেটে নৌকা নিয়ে আসার সময় মাঝ নদীতে আসলে তীব্র স্রোতে আমাদের নৌকা ডুবে যায়। নদীতে সে সময় প্রবল স্রোত থাকায় আমরা তীরে ভিড়তে পারি নাই। পরে কেটে আনা ঘাসের বোঝার ওপর ভর করে ভাসতে থাকি।

তারা আরো বলেন, ভাসতে ভাসতে ৭ কিলোমিটার দূরে উজানচরের চর কর্ণেশান এলাকায় চলে আসি। পরে দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকা থেকে স্থানীয়রা দেখে পুলিশকে খবর দিলে গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ এসে আমাদের উদ্ধার করে। ভেবেছিলাম আমরা হয়তো আর বাঁচব না। কিন্তু আল্লাহর অশেষ রহমত ও থানার ওসিসহ অন্যদের সহযোগিতায় উত্তাল পদ্মা থেকে বেঁচে ফিরে আসি।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর বলেন, আমরা ঘাটেই অবস্থান করছিলাম। এ সময় ভেসে যেতে দেখতে পেয়ে জেলেদের মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলার নিয়ে আধা ঘণ্টার চেষ্টায় তাদের জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করতে সক্ষম হই। পরে তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

স্বদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত