ঢাকা, ১৬ জানুয়ারি, ২০২১
সর্বশেষ:
আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুম (০১৭০০৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন নম্বরে (০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫, ০১৯৪৪৩৩৩২২২, ০১৫৫০০৬৪৯০১–০৫) যোগাযোগ করা যাবে। এ ছাড়া করোনাসংক্রান্ত তথ্য জানতে বা সহযোগিতা পেতে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ এবং ৩৩৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। অনলাইনে করোনা নিয়ে যোগাযোগ করতে আইইডিসিআরের ই-মেইল [email protected] এবং ফেসবুক পেজে (Iedcr,COVID19 Control Room) যোগাযোগ করা যাবে। জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

ইঞ্জিন বিকল হয়ে সাগরে ১৫ দিন হাহাকার করছিলেন ১৯ জেলে

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২৩:৫৯, ১০ ডিসেম্বর ২০২০  

ইঞ্জিন বিকল হয়ে ১৫ দিন বঙ্গোপসাগরে ভাসছিলেন এই ১৯ জেলে।

ইঞ্জিন বিকল হয়ে ১৫ দিন বঙ্গোপসাগরে ভাসছিলেন এই ১৯ জেলে।

প্রপেলর ভেঙে যাওয়ায় ইঞ্জিন বিকল হয়ে ১৫ দিন বঙ্গোপসাগরে ভাসছিলেন ১৯ জেলে। এরপর ভারতীয় কোস্টগার্ড বোটটিকে উদ্ধার করে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের কাছে হস্তান্তর করেছে। 

বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) দুপুরে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড সদর দফতরের মিডিয়া কর্মকর্তা লে. কমান্ডার এম হামিদুল ইসলাম এ তথ্য জানান। বোর্ট মালিক ও জেলেদের বাড়ি কক্সবাজারে। তাদের সংশ্লিষ্টদের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের সদর দফতরের মিডিয়া কর্মকর্তা লে. কমান্ডার এম হামিদুল ইসলাম জানান, চট্টগ্রাম থেকে এফবি রানা নামের ফিসিং বোটটিতে ১৯ জন জেলে গত ১৫ নভেম্বর গভীর সাগরে মাছ ধরার জন্য যায়। এরপর ২৩ নভেম্বর বোটটির প্রপেলর (পাখা) ভেঙে গেলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ভাসতে ভাসতে ভারতীয় জলসীমায় চলে যায়। প্রায় ১৫ দিন ধরে মাঝসাগরে ভাসার পর ইন্ডিয়ান কোস্ট গার্ড জাহাজ ভদর তাদের দেখতে পায়।

গত ৮ ডিসেম্বর ইন্ডিয়ান কোস্টগার্ড ওই বোটটি উদ্ধার করে ৯ ডিসেম্বর ভোর ৬টার সময় বাংলাদেশ জলসীমায় টহলরত কোস্টগার্ডের জাহাজ সিজি সোনার বাংলার কাছে হস্তান্তর করে। এরপর ১০ ডিসেম্বর দুপুরে তাদের কোস্ট গার্ডের মোংলা পশ্চিম জোন সদর দফতরে আনা হয়।

এ ঘটনায় দুই দেশের কোস্ট গার্ডের পারস্পরিক সহযোগিতা বৃদ্ধি পাবে বলে আশা প্রকাশ কোস্টগার্ডের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘বাংলাদেশ কোস্টগার্ড তার সূচনালগ্ন থেকেই উপকূলীয় এলাকার অসহায় দুঃস্থ জেলেসহ সবার সহযোগিতা, চিকিৎসা, দুর্যোগ মোকাবিলা করে আসছে।’ এ ধরনের কার্যক্রম ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

আরও পড়ুন
স্বদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত