ঢাকা, ২৩ জুন, ২০২১
সর্বশেষ:

আত্মরক্ষার্থে ধর্ষকের জিব কামড়ে ছিঁড়ে ফেললেন আক্রান্ত নারী

মুন্সীগঞ্জ সংবাদদাতা

প্রকাশিত: ০০:৪১, ৪ মার্চ ২০২০  

দক্ষিণ আফ্রিকায় ধর্ষণ চেষ্টাকারীর ছবি             -ফাইল ফটো

দক্ষিণ আফ্রিকায় ধর্ষণ চেষ্টাকারীর ছবি -ফাইল ফটো

সময়টা গত সোমবার দিবাগত রাত একটা প্রায়। মুন্সিগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান উপজেলায় একটি গ্রাম। এলাকায় একটি বিয়ের অনুষ্ঠান চলছিল। তাই অনেক রাত হলেও সাউন্ড বক্সে বেশ জোরে চটকদার গান বাজছিল। এসময় ওই নারী বিয়ের আয়োজনস্থল থেকে নিজের ঘরে ফিরছিলেন। এ সময় মৃত সুকলাল মণ্ডলের ছেলে সাগর মণ্ডল (৪৪) নামের এক ব্যক্তি তার পিছু নেয়। 

সুযোগ বুঝে সাগর ঘরেও ঢুকে যান ওই নারীর এবং তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। আক্রান্ত নারী চিৎকার দিলেও গানের বিকট শব্দের কারণে আশপাশের কেউ তা টের পায়নি। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, একপর্যায়ে ওই নারী নিজেকে রক্ষা করতে সাগরের জিব কামড়ে ধরে। এতে সাগরের জিবের অগ্রভাগ প্রায় এক ইঞ্চি পরিমাণ কেটে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

গুরুতর অবস্থায় সাগরকে উদ্ধার করে রাজধানীর মিটফোর্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে সাগর সেখান থেকে পালিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ধর্ষণ চেষ্টাকরীর জিভ কেটে নেওয়া ওই নারীর সূত্রে জানা গেছে, তার স্বামী বিদেশে থাকেন। এই সুযোগে সাগর গত এক বছর ধরে বিভিন্নভাবে তাকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। এ ব্যাপারে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কাছে অভিযোগও জানানো হয়। কিন্তু তাতে কিছুই হয়নি। একর্যায়ে সোমবার রাতে মওকা বুঝে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে সাগর। নিজেকে রক্ষা করতে বিভিন্নভাবে চেষ্টা করেন। কিন্তু একপর্যায়ে কৌশলে সাগরের জিব কামড়ে ধরেন তিনি।

সিরাজদিখান উপজেলার ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম এ বিষয়ে বলেন, ‘আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছি। ওই নারীর সঙ্গে কথা বলেছি। বিষয়টি পুলিশকেও জানানো হয়েছে। সাগরকে ঢাকা মিটফোর্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।’

সিরাজদিখান থানার ওসি ফরিদ উদ্দিন জানান, তারা মিটফোর্ড হাসপাতালে খোঁজ নিয়ে জানতে পেরেছেন সেখানে সাগর নেই। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। এ বিষয়ে একটি মামলা হচ্ছে বলে জানান ওসি।

প্রসঙ্গত গত বছরেরর জুনে দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রায় একই ধরনের একটি ঘটনা ঘটে। দক্ষিণ আফ্রিকার ব্লোমফন্টেইন শহরের পেলোনোমি টার্সিয়ারি হাসপাতালে স্টাফ কোয়ার্টারে নিজের কক্ষে ঘুমিয়েছিলেন ২৪ বছর বয়সী এক নারী চিকিৎসক। গভীর রাতে এক ব্যক্তি হাসপাতালের কোয়ার্টারে ঢুকে ঘুমন্ত চিকিৎসককে চুম্বন ও ধর্ষণের চেষ্টা করে। এতে ওই নারীর ঘুম ভেঙে যায়। তিনি জোরপূর্বক চুম্বন চেষ্টারত ধর্ষকের জিব কামড়ে ছিঁড়ে নিজেকে রক্ষা করেন তিনি।

ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি মেইল জানায়, বহিরাগত ওই ব্যক্তি রোগী সেজে হাসপাতালে ঢুকেছিল। পরে ওই চিকিৎসকের স্টাফ কোয়ার্টারে অনুপ্রবেশ করে এবং ঘরে ঢুকে ঘুমন্ত চিকিৎসকের ওপর হামলে পড়ে। একপর্যায়ে ওই নারীর মুখের ভেতর জিহ্বা ঢুকিয়ে চুম্বনের চেষ্টা করে সে। এ ঘটনা কাল হয়ে দেখা দেয় ওই ধর্ষকের জন্য। আক্রান্ত চিকিৎসক ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে মুখের ভেতর থাকা ধর্ষকের জিব কামড়ে ধরেন এবং তা ছিঁড়ে যায়। ধর্ষকের মুখে মারাত্মক রক্তপাত শুরু হয় এবং সে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনার পর শহরের সব হাসপাতাল ও ক্লিনিকে সতর্কতা জারি করা হয়। ওইদিন রাতেই দুইটার পরে ওই ব্যক্তি পেলোনোমির ন্যাশনাল হাসপাতাল চিকিৎসা নিতে যায়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সঙ্গে সঙ্গে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাকে গ্রেপ্তর করে।
নিউজওয়ান২৪.কম/আরকে

আরও পড়ুন
অপরাধ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত