ঢাকা, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
সর্বশেষ:

পৃথিবী সম্পর্কিত কিছু তথ্য

প্রকাশিত: ২১:৪৯, ৯ এপ্রিল ২০২১  

পৃথিবী সম্পর্কিত কিছু তথ্য

পৃথিবী সম্পর্কিত কিছু তথ্য

পৃথিবী এখন পর্যন্ত পাওয়া একমাত্র মহাজাগতিক স্থান যেখানে প্রাণের অস্তিত্বের কথা বিদিত। আর তাই মানুষসহ কোটি কোটি প্রজাতির আবাসস্থল।

পৃথিবী সূর্য থেকে দূরত্ব অনুযায়ী তৃতীয়, সর্বাপেক্ষা অধিক ঘনত্বযুক্ত এবং সৌরজগতের আটটি গ্রহের মধ্যে পঞ্চম বৃহত্তম গ্রহ। সূর্য হতে এটির দূরত্ব প্রায় ১৫ কোটি কি. মি। এটি সৌরজগতের চারটি কঠিন গ্রহের অন্যতম।

প্রিয় পাঠক পৃথিবী সম্পর্কে আরো অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য নিয়ে আমাদের আজকের এই আয়োজন। চলুন তাহলে জেনে নিই- পৃথিবী সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্য।

> পৃথিবীকে বলা হয় Blue Planet বা Blue Marble। কারণ মহাশূন্য থেকে পৃথিবীর আবহমণ্ডলের কারণে এই গ্রহকে নীল দেখায়।

> পৃথিবীর বয়স প্রায় ৪.৬ বিলিয়ন বছর।

> সূর্যের আলোকরশ্মি পৃথিবীতে পৌঁছুতে সময় লাগে ৮ মিনিট ৩ সেকেণ্ড।

> পৃথিবীর সর্বোচ্চ পর্বত শৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্ট। চীন নেপাল সীমান্তে অবস্থিত এই পর্বতের উচ্চতা ২৯০৩৫ ফুট।

> পৃথিবীর ভূপৃষ্ঠ থেকে কেন্দ্রের গড় দুরুত্ব ৬৩৭৮ কিলোমিটার।

> মহাশূন্যে পৃথিবীর গতিবেগ ঘণ্টায় ৬৬,৭০০ মাইল।

> পৃথিবীই একমাত্র গ্রহ যেখানে পানি ভূপৃষ্ঠে তরলাকারে ধারণ করতে পারে।

> পৃথিবীর মোট পানির শতকরা মাত্র ৩ ভাগ সুপেয় । বাকি ৯৭ ভাগ লবনাক্ত। সুপেয় জলের ৩ ভাগের ২ ভাগ হিমায়িত অবস্থায় আছে বরফাবৃত অঞ্চল গুলোতে। বাকি ১ ভাগ পাওয়া যায় হ্রদ, নদী ও ভূগর্ভে।

> পৃথিবীর মোট পানির শতকরা ৭০ ভাগ ধারণ করে আছে পৃথিবীর বরফাবৃত অঞ্চলগুলো।

> পৃথিবীর মোট স্থলভাগের শতকরা ৩০ ভাগ দখল করে আছে এশিয়া মহাদেশ। মোট জনসংখ্যার শতকরা ৬০ ভাগ বাস করে এশিয়া মহাদেশেই।

> পৃথিবীর মোট পৃষ্টদেশের শতকরা মাত্র ১১ ভাগ কৃষিকাজে ব্যবহৃত হয়।

> পৃথিবীর যত গুহা আছে তার মধ্যে সবচেয়ে বড় গুহাকক্ষ মালয়েশিয়ার Sarawak Chamber। এর দৈর্ঘ্য ৭০১ মিটার , প্রস্থ ৪০০ মিটার এবং উচ্চতা ৭০ মিটার।

> ভেনিজুয়েলার Angel Falls পৃথিবীর সর্বোচ্চ উচ্চতার জলপ্রপাত । আইফেল টাওয়ারের ৩ গুণ উচ্চতা সম্পন্ন এই জলপ্রপাতের উচ্চতা ৯৭৯ মিটার।

> রাশিয়ার বৈকাল হ্রদ (Baikal Lake) পৃথিবীর সবচেয়ে গভিরতম হ্রদ এর গভীরতা ৫৩১৫ ফুট।

> পৃথিবীর শুষ্ক অঞ্চলগুলোর মধ্যে সবচেয়ে নিম্নভূমি মৃতসাগর (Dead Sea) এটি সমুদ্র সমতল থেকে ৪০০ মিটার নীচে অবস্থিত।

> প্রশান্ত মহসাগর আয়তনে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় মহাসাগর। পৃথিবীর প্রায় এক-তৃতীয়াংশ দখল করে থাকা এই মহাসাগরের আয়তন ১৫,৫৫,৫৭,০০০ বর্গকিলোমিটার।

> পৃথিবীর সবচেয়ে লবনাক্ত সাগর লোহিত সাগর (মৃত সাগর বাদে)।

> এই যাবতকালের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় লিবিয়ার El Azizia অঞ্চলে। ১৯২২ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর এখানে তাপমাত্রা ছিল ৫৭.৮ °C বা ১৩৬.০ °F

> পৃথিবীর সর্বনিম্ন তাপামাত্রা রেকর্ড করা হয় ১৯৮৩ সালের ২১ জুলাই। সেদিন এন্টার্ক্টিকার Vostok অঞ্চলের তাপমাত্রা ছিল -১২৯ ডিগ্রী ফারেনহাইট বা -৮৯ ডিগ্রী সেলসিয়াস।

> পৃথিবীর সবচেয়ে উষ্ণতম সাগর লোহিত সাগর। যেখানে তাপমাত্রা ৬৪ ডিগ্রী ফারেনহাইট থেকে ৮৭.৮ ডিগ্রী ফারেনহাইট। এটা নির্ভর করে কোথায় তা পরিমাপ করা হচ্ছে তার উপর।

> পৃথিবীর সবচেয়ে উষ্ণতম অঞ্চল ইথোপিয়ার Dallol। এই অঞ্চলের গড় তাপমাত্রা ৩৪.৪°C বা ৯৩.৯ °F। দিনের বেলায় এই অঞ্চলের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১.১ °C বা ১০৬.০ °F।

> পৃথিবীর সবচেয়ে বড় এবং উষ্ণমরুভূমি সাহারা। আয়তনে প্রায় ৯০ লাখ বর্গকিলোমিটার।

প্রিয় পাঠক আজ তাহলে এ পর্যন্তই থাক। পরবর্তীতে ফিরবো আরো নতুন নতুন তথ্য নিয়ে।

নিউজওয়ান২৪.কম/রাণী