ঢাকা, ১৯ জানুয়ারি, ২০২০
সর্বশেষ:
জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯

লড়াই চলবে: ইশরাক, বিজয় ছিনিয়ে আনতে হবে: তাবিথ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১২:৪৬, ১০ জানুয়ারি ২০২০  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) বিএনপির মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন আসন্ন ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সুষ্ঠু ভোটের সম্ভাবনা দেখছেন না। আর উত্তরের বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল বলছেন, নির্বাচনকে নিয়েছেন যুদ্ধ হিসেবে। এই যুদ্ধে জয়ী হতে হবে। বিজয় ছিনিয়ে আনতে হবে। যেখানে যাচ্ছি সেখানে ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি।

বৃহস্পতিবার (৯ জানুয়ারি) বিকালে রাজধানীর গোপীবাগ রোডের সাদেক হোসেন খোকা কমিউনিটি সেন্টারের ডিএসসিসির রিটার্নিং অফিসের অস্থায়ী কার্যালয়ে ভোট নিয়ে এমন মন্তব্য করেন ইশরাক হোসেন। আর তাবিথ কথা বলেন রাজধানীর বাংলামোটরে দলের ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সঙ্গে মতবিনিময় সভায়।

ইশরাক রিটানিং কর্মকর্তার কাছে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীর বিরুদ্ধে আচারণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ দেন। এ বিষয়ে তিনি বলেন, নির্বাচনে আচরণবিধি লঙ্ঘনের যে অভিযোগ আমরা দিয়েছি, সে অভিযোগ নিয়ে এই নির্বাচন কমিশনের কোনো কিছু করার ক্ষমতা নেই। বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতি অনুযায়ী একটি নির্দলীয় সরকারের অধীনে ছাড়া কোনো নির্বাচন সুষ্ঠু হওয়ার সম্ভাবনা নেই। সরকারি দলের প্রার্থীরা যেভাবে আচরণবিধি লঙ্ঘন করে যাচ্ছেন সেভাবে করে যাবেন। এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ নেয়ার ক্ষমতা নির্বাচন কমিশনের বা রিটার্নিং অফিসারের নেই।

তিনি আরো বলেন, ঢাকা দক্ষিণের বিভিন্ন স্থানে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর প্রচার-প্রচারণা, রঙিন ব্যানার আমরা দেখেছি। রিটার্নিং অফিসার বরাবর আওয়ামী লীগের প্রার্থীর বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট ও তথ্যপ্রমাণসহ অভিযোগ দিয়েছিলাম। অভিযোগের ব্যাপারে জানতে আমরা আজ এসেছি। রিটার্নিং অফিসার আমাকে জানিয়েছেন, অভিযোগের ব্যাপারে ম্যাজিস্ট্রেটকে একটি চিঠি দিয়েছেন। এখন ম্যাজিস্ট্রেটের রিপোর্টের জন্য রিটার্নিং অফিসার অপেক্ষা করছেন। তাছাড়া এখানে আসার আরেকটা উদ্দেশ্য হচ্ছে, ইভিএম সম্বন্ধে জানা।

ইভিএম সম্পর্কে তিনি বলেন, যদিও ইভিএম সম্বন্ধে আমার সম্পূর্ণ ধারণা রয়েছে। ইভিএম সম্পর্কে নির্বাচন কমিশনের যে অংশটা রয়েছে সেটা আমাদের বুঝিয়েছে। কিন্তু এখানে কী সফটওয়্যার দ্বারা ইভিএম চালিত হচ্ছে এবং ভেতরে কী প্রোগ্রাম রয়েছে সে ব্যাপারে তাদের কোনো ধারণা নেই। ইভিএম নিয়ে আমাদের আস্থা রাখার কোনো প্রশ্নই আসে না। ইভিএমের ভেতরে যদি প্রোগ্রাম সেট করা থাকে, তাহলে সম্পূর্ণ ফলাফল পরিবর্তন করা যায়। এ ফলাফল পাল্টে যাবে নিশ্চুপে, কারো কোনো কিছু বোঝার ক্ষমতা থাকবে না।

শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত নির্বাচনের মাঠে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করে ইশরাক বলেন, আমাদের এ লড়াই চলবে। সারাজীবন চলবে। আমরা তো মানুষের অধিকারের জন্য লড়াই করছি। মানুষের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দেয়ার লড়াই করছি। গণতন্ত্রের পক্ষে লড়াই করছি। এ লড়াইয়ের কোনো শেষ নেই।

তিনি বলেন, একটি ভুয়া নির্বাচনের ফলাফল দিয়ে জয়-পরাজয় নির্ভর করে না। আমাদের জয় আমাদের হয়ে গেছে। কারণ দেশের ৮০ ভাগ মানুষ এ সরকারের বিপক্ষে। এ সরকারের সব প্রার্থীর বিরুদ্ধে চলে গেছে। এটি তারা বুঝতে পেরেছে। এজন্য গত জাতীয় নির্বাচনে তারা তামাশার নির্বাচন করেছিল। একবার যখন তারা এটা করেছে এখন তারা পন্থাটা পরিবর্তন করছে।

আসন্ন নির্বাচনকে যুদ্ধের সঙ্গে তুলনা করে তাবিথ আউয়াল বলেছেন, ‘এ ইলেকশন একটি যুদ্ধ। এ যুদ্ধে আপনারা আমার সঙ্গে থাকবেন, পাশে থাকবেন। যুদ্ধ শেষ না হওয়া পর্যন্ত আপনাদের সামনে থেকে আমি লড়াই করে যাব। এ যুদ্ধে বিজয় অবশ্যই ছিনিয়ে আনব।'

জনগণের কাছ থেকে সাড়া পাওয়া যাচ্ছে দাবি করে তিনি বলেন, 'এটা শুধু বিএনপির নির্বাচন নয়, এটা খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন। এ জয় হবে সারাদেশের মানুষের। বিএনপির প্রতি মানুষের জনরায় হবে। জনরায় বিএনপির দিকে টানতে নেতাকর্মীদের সজাগ থাকতে হবে।'

তিনি বলেন, 'যেখানেই কথা বলছি, সেখান থেকে ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। প্রার্থীদের জন্য, ধানের শীষের জন্য, বিশেষ করে বেগম খালেদা জিয়ার জন্য। আগামী দিনে আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে, আমরা কিন্তু ভোটের রাজনীতিতে অবশ্যই নামছি। ’

বিএনপির মেয়রপ্রার্থী বলেন, 'এটা সব দেশের মানুষের জয় হবে। কারণ সব দেশের মানুষ ঢাকা শহরে বাস করে। ভোটাররা অপেক্ষায় আছে। ১৬ কোটি মানুষের পক্ষে শক্তভাবে প্রস্তুত থাকতে হবে। প্রস্তুতি নিতে হবে। যেন ভোটের বাক্সে জনরায় নিয়ে আসতে পারি। গণনা পর্যন্ত থাকতে পারি।'

দ্বিতীয়বারের মতো মেয়র পদে বিএনপির মনোনয়ন পাওয়ায় দলের নেতাকর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতাও প্রকাশ করেন তাবিথ আউয়াল।

এসময় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, বেগম সেলিমা রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়াল মিন্টু, বরকতউল্লা বুলু, মো. শাজাহান, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানিসহ বিএনপি সহযোগি সংগঠনের শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজওয়ান২৪.কম/এমজেড

আরও পড়ুন