ঢাকা, ১২ এপ্রিল, ২০২১
সর্বশেষ:
দেশে প্রথমবারের মতো সংবাদ পাঠ করলেন ট্রান্সজেন্ডার নারী ২৫ মার্চ চট্টগ্রামে অনেককে জিয়া গুলি করে হত্যা করে: প্রধানমন্ত্রী

মামলা প্রত্যাহার না করলে আন্দোলনের হুমকি জুনায়েদ বাবুনগরীর

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০০:১১, ৩ এপ্রিল ২০২১  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

শুক্রবার ও রবিবারের তাণ্ডবের ঘটনায় যেসব মামলা হয়েছে, সেগুলোকে মিথ্যা উল্লেখ করে প্রত্যাহার করার দাবি জানিয়েছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির জুনায়েদ বাবুনগরী। মামলা প্রত্যাহার না হলে আন্দোলনে নামার হুমকি দিয়েছেন তিনি। 

জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, সরকার আমার নামে অনেক মামলা দিয়েছে। আরো মামলা দিতে পারে। আমি জেলে গিয়েছি। তাই আমি জেলখানায় যেতে ভয় পাই না। যেকোনো মুহূর্তে জেলখানায় যেতে প্রস্তুত আছি।

আজ (শুক্রবার) জুমার নামাজের পর হাটহাজারীর জেলা পরিষদ মার্কেট চত্বরে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে জুনায়েদ বাবুনগরী এসব কথা বলেন। 

হেফাজতের কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে এই বিক্ষোভ সমাবেশ ডাকা হয়। গত শুক্রবার জুমার নামাজের পর ঢাকার বায়তুল মোকাররম মসজিদ এলাকায় সংঘর্ষ হয়। ওই ঘটনার প্রতিবাদে হাটহাজারীতে মাদরাসা শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। 

পরে পুলিশের সঙ্গে ছাত্রদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে চার জন নিহত হন। ওই ঘটনার প্রতিবাদে আজ দেশব্যাপী বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে হেফাজতে ইসলাম।

বাবুনগরী বলেন, যেসব হেফাজতের নেতাকর্মী শহীদ হয়েছেন, তাদের ক্ষতিপূরণ সরকারকে দিতে হবে। ছাত্রলীগ, পুলিশে র হামলায় হেফাজতের যেসব নেতাকর্মী আহত হয়েছেন তাদের সুচিকিৎসার দায়িত্ব সরকারকে নিতে হবে। পাশাপাশি যেসব হেফাজত নেতাকর্মী পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন তাদের মুক্তি দিতে হবে। নয়তো হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ আন্দোলনে নামতে বাধ্য হবে।

তিনি আরো বলেন, যারা নিরীহ ছাত্রদের গুলি করেছে, তাদের বিরুদ্ধে আন্দোলন চলবে। হাটহাজারী থানার ওসি রফিকুল ইসলামের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। তিনি ওসি থাকতে পারবেন না।

হেফাজতে ইসলামকে ‘শত্রু’ গণ্য না করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অনুরোধ জানিয়ে জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, আমরা আপনার শত্রু নই। আপনার শত্রু আপনার ঘাড়ে বসে আছেন। বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী কেউ আলেম নয়। কোনও পীর আউলিয়া তাকে হত্যা করেনি। তাকে হত্যা করেছে তার আশপাশে থাকা লোকজন। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বলবো, আপনি আপনার শত্রুকে চিনে নিন। যারা কোনও ধর্ম মানে না, যারা নাস্তিক, তারাই ইসলামের শত্রু। তারাই আপনার শত্রু।

হাটহাজারীর পাশাপাশি এদিন জুমার নামাজের পর চট্টগ্রাম নগরীতেও বিক্ষোভ সমাবেশ করে হেফাজত নেতাকর্মীরা।

জুমার নামাজের পর নগরীর আন্দরকিল্লা এলাকায় পুলিশ ও র‌্যাবের কঠোর পাহারায় পূর্বঘোষিত এই কর্মসূচি পালন করে হেফাজত নেতাকর্মীরা। হেফাজতে ইসলাম চট্টগ্রাম নগর শাখার সাধারণ সম্পাদক মাওলানা লোকমান হাকিমের সভাপতিত্বে হেফাজত নগর কমিটির নেতাকর্মীরা সমাবেশে বক্তব্য রাখেন।

সমাবেশ থেকে দেশের বিভিন্ন স্থানে সংঘাত-সংঘর্ষের জন্য হাটহাজারী থানার ওসিসহ পুলিশের কিছু কর্মকর্তাকে দোষারোপ করে গ্রেফতারকৃত হেফাজত নেতাকর্মীদের মুক্তি দাবি করা হয়। হতাহতদের ক্ষতিপূরণ দাবি করা হয়।

আরও পড়ুন