ঢাকা, ১১ নভেম্বর, ২০১৯
সর্বশেষ:
জরুরি প্রয়োজনে কল করুন- ৯৯৯ আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন ডিসেম্বরে হেল্পলাইন ১৬২৬৩ এ কল করলেই ডাক্তারের পরামর্শ

প্রচারণায় বাংলাদেশি শিল্পী ব্যবহারে তৃণমূলের সমালোচনায় মোদি

প্রকাশিত: ১৬:৩০, ২০ এপ্রিল ২০১৯  

গাজী আবদুন নূর ও ফেরদৌস               -ফাইল ফটো

গাজী আবদুন নূর ও ফেরদৌস -ফাইল ফটো

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিয়ে বিতর্কিত বাংলাদেশি অভিনেতা ফেরদৌস ও গাজী আবদুন নূরের সমালোচনায় এবার মুখ খুললেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তবে তিনি তাদের নাম মুখে আনেননি। 

আজ (শনিবার) সকালে দক্ষিণ দিনাজপুরে নির্বাচনী জনসভায় দেয়া এক বক্তব্যে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেন, তৃণমূলের অবস্থা যে কতটা খারাপ তা বিদেশিদের নিয়ে এসে নির্বাচনে প্রচার চালানোর ঘটনা থেকেই পরিষ্কার হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত রবিবার উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জ জেলার তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী কানহাইয়া লাল আগারওয়ালের পক্ষে প্রচারণায় অংশ নেন বাংলাদেশের ফেরদৌস আহমেদ। ওই সময় তার সঙ্গে ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের টালিউড তারকা অঙ্কুশ হাজরা ও পায়েল।আর রাণী রাসমণি খ্যাত অভিনেতা গাজী আবদুন নূরকেও দেখা যায় দমদমে সৌগত রায়ের নির্বাচনী প্রচারণায়। 

তৃণমূলকে ইঙ্গিত করে মোদি আরো বলেন, তারা বিদেশিদের এনে প্রচার চালাচ্ছে। ভারতের ইতিহাসে বিদেশিদের (বাংলাদেশি অভিনেতা ফেরদৌস ও গাজী নূর) দিয়ে প্রচারের নজির ছিল না। এটাই প্রমাণ করে তৃণমূলের ভোটব্যাংকের জন্য মমতা যে কোনো কাজ করতে পারেন।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে কটাক্ষ করে মোদি বলেন, দিদির স্বপ্নে স্পিড ব্রেকার পড়ে গেছে। বাংলার মানুষ এখন পরিবর্তন চায়। রাজ্যের উন্নয়ন নেই। যুবকরা চাকরি পাচ্ছে না। এ সরকার থেকে মুক্তির জন্য এখন বিজেপিকে ভোট দিতে হবে।

বুনিয়াদপুরের এ নির্বাচনী সমাবেশে বেশকিছু সময় বাংলায় ভাষণ দেন নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেন, এই বৈশাখের তীব্র দাবদাহ উপেক্ষা করে হাজারও মানুষ সভায় এসেছেন। দ্বিতীয় দফার ভোটে বাংলার সাধারণ মানুষ ভোট দেয়ার জন্য যেভাবে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন তা গোটা দেশের জন্য দৃষ্টান্ত।

বিদেশি নাগরিক হয়েও মমতা ব্যানার্জির নেতৃত্বাধীন তৃণমূল কংগ্রেসের নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিয়ে বিতর্কিত হয়েছেন নায়ক ফেরদৌস। একপর্যায়ে সেখানকার বাংলাদেশ কনস্যুলেটের নির্দেশে তরিঘড়ি বাংলাদেশে ফিরে আসতে বাধ্য হন তিনি। পশ্চিমবঙ্গ বিজেপি তার নামে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ করে তাকে গ্রেপ্তারের দাবি জানায়। ফেরদৌস ছাড়াও একই অভিযোগে পশ্চিমবঙ্গ থেকে দেশে ফিরে আসতে হয়েছে বাংলাদেশের বাগেরহাটের বাসিন্দা গাজি আবদুন নূরকেও। তিনি ভারতের জিবাংলা চ্যানেলের জনপ্রিয় ‘করুণাময়ী রানি রাসমণি’ ধারাবাহিকে রাজা রাজচন্দ্রের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন। গাজী নূরকেও ভারত ছাড়ার নির্দেশ দেয় দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়। একটি সূত্র জানায় একই ধরনের সমস্যায় পড়তে পারেন দুই বাংলায় জনপ্রিয় অভিনেত্রী  বাংলাদেশের জয়া আহসানও।  

নিউজওয়ান২১৪.কম/আরকে